সত্যি কি বাজেটে গ্রামের উপর জোর? আয়করে বাড়তি ছাড় মাত্র ৩ হাজার টাকা

কৃষকদের আত্মহত্যার মিছিল যখন প্রতিদিনই বাড়ছে তখন কেন্দ্রীয় বাজেট থেকে গ্রামীণ অর্থনীতিতে বাড়তি গুরুত্ব আশা করা হয়েছিল। মিডিয়া অবশ্য বলছে বাজেটে গুরুত্ব পেয়েছে গ্রামীণ অর্থনীতি। বাস্তব কি তাই? যেখানে জাতীয় সড়ক নির্মাণে  খরচ করা হবে ৭০ হাজার কোটি টাকা( ৫৫+ ১৫) সেখানে ১০০ দিনের কাজে বরাদ্দ মাত্র ৩৮ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। আগের বছর তা ছিল ৩৪হাজার ৬৯৯ কোটি টাকা। মুদ্রাস্ফীতিকে বাদ দিলে বৃদ্ধি যত্সামান্যই। সেচের ক্ষেত্রে ঠিক কত টাকা এবছর খরচ করবে কেন্দ্র তা স্পষ্ট করা হয়নি। অন্যদিকে  মধ্যবিত্ত , বিশেষ করে চাকুরীজীবীরা আশা করেছিলেন আয়করে ঊর্ধ্বসীমার ক্ষেত্রে তাঁরা হয়তো কিছুটা ছাড় পাবেন। কিন্তু  এবারের বাজেটে আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। তবে ৫ লক্ষ টাকা আয়ের ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ছাড় ২০০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫ হাজার টাকা করা হয়েছে। ছাড় বেড়ে বাড়ি ভাড়ার ক্ষেত্রেও। এখানে ছাড়ের অঙ্কটা ২৪ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৬০ হাজার টাকা করা হয়েছে।