কেরলের মন্দিরে শতাধিক মানুষের মৃত্যু কি নিছক দুর্ঘটনা?

0
14

কেরলের মন্দিরে বাজি পোড়ানোর আগুনে পুড়ে ১১১ জনের মৃত্যুর পরও বাজির উত্সব চালিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর মন্দির কর্তৃপক্ষ। শতাধিক মানুষের মৃত্যুর জেরে ৫জনকে গ্রেফতার ( বলির পাঁঠা!) করেছে পুলিস। সময়ের সঙ্গে  আত্মসমর্পণ করেছে মন্দির কর্তৃপক্ষের বেশ কয়েকজনও। পুলিস এদের বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা এনেছে বলে জানাচ্ছে মিডিয়া।  তবে মন্দির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়ার সাহস দেখাতে পারেনি সরকার। কারণ ভোট। শুধু কেরল নয়, ভারতের একাধিক মন্দির ও পুন্যস্নানের সময় পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যু রুটিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। যাঁরা মারা যান তাঁরা অধিকাংশই গরীব। ফলে এই নিয়ে হৈচৈও হয়না। সরকার একে দুর্ঘটনা বলেই চালিয়ে দিতে অভ্যস্ত। কিন্তু এত লোকসমাগম যেখানে হচ্ছে সেখানে আগে থেকে সরকার কোন ব্যবস্থা নেয় না কেন? এই মৃত্যুগুলোকে নিছক দুর্ঘটনা বলে  সরকার কি তার দায় এড়াতে পারে?