কাঠগড়ায় মিডিয়া নিজেই

0
8

মিডিয়ার নিরপেক্ষতা চিরকালই সোনার পাথরবাটি।তবে সম্প্রতি বাংলা মিডিয়ায় ডিগবাজি চোখে পড়ার মত। ২০১১ সালের আগে তৃণমূলের মুখপাত্র হয়ে ওঠা এবিপি আনন্দ ২০১৪ সালে বিজেপির বন্দনা করার পর হঠাত্ই এরাজ্যে জোটপন্থী হয়ে ওঠেছে। অন্যদিকে প্রায় ১০ বছর আলিমুদ্দিনের অঙ্গুলিহেলনে চলা সুভাষচন্দ্রের( মোদি ভক্ত) ২৪ ঘন্টা হঠাত্ই ডিগবাজি খেয়ে তৃণমূলের কোলে ঝোল টেনে খবর করতে শুরু করেছে। যে কোন দর্শক একটু নজর করলেই তা বুঝতে পারবেন। সোমবার মালদহে  বোমা বিস্ফোরণে ৪জনের মৃত্য ও ৬জই ঘটনার সঙ্গে তৃণমূলের যোগ থাকার ইঙ্গিত করছে ঠিক সেই সময় নিহতরে আগে কংগ্রেস করতেন থেকে শুরু করে ‘বংশগত’ ঝামেলার জেরেই মৃত্যু এরকম তথ্য তুলে ধরা হয়। কসবাতে সিপিএম কর্মীর উপর হামলা হয়েছে বলে যখন খবর করছে এবিপি তখন ২৪ ঘন্টা এর সঙ্গে জুড়ে দিচ্ছে ১৫০ সিপিএম কর্মীর তৃণমূলে যোগ দেওয়াতেই নাকি হামলা চালিয়েছে সিপিএম, অভিযোগ কংগ্রেসের। উদাহরণ বাড়িয়ে লাভ নেই। সুতরাং নিউজ চ্যানেলগুলোর অবস্থা ঠিক কী আর তাতে সাংবাদিকদের অবস্থা কী তা সহজেই অনুমেয়।