ন্যায্যমূল্যের দোকানে ৬০-৭০ % ছাড়ের আড়ালে অনেকেক্ষেত্রে প্রতারণা

0
1

সরকারি হাসপাতালে চালু হওয়া ন্যায্য মূল্যের ওষুধের দোকান মমতা সরকারের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় প্রকল্প। সরকারি হাসপাতালের মধ্যে বেসরকারি সংস্থাগুলি এই ওষুধ বিক্রির সুযোগ দেওয়ার কারণ ছিল স্বল্প্যমূল্যে জেনেরিক ওষুধ পাবেন রোগীরা। কোথাও ৬৬.৩৩% কোথাও আবার ৭০% ওষুধের দামে ছাড় দেয় এই সব দোকান। কিন্তু অনেকক্ষেত্রেই এই ছাড় অনেকটা চৈত্র সেলের মত, দাম বাড়িয়ে ডিসকাউন্ট দেওয়ার মত।   সামান্য ইসবগুলের ১০০ গ্রামের বিক্রি মূল্য এখানে ১৫০ টাকা। বাজারে যার দাম ৮০-  ৯০ টাকা। উদাহরণ বাড়িয়ে লাভ নেই। একথা সত্যি ন্যায্যমূল্যের ওষুধের দোকানগুলির ফলে রোগীদের বেশ কিছুটা সুরাহা হয়েছে। ন্যায্য মূল্যের দোকানে ওষুধ সরবরাহকারী ছোট কোম্পানীগুলির এই দাম বাড়িয়ে বিক্রির কৌশল বন্ধ করা না হলে এর ১০০ শতাংশ সুফল কখনও পাবেন না ক্রেতারা। বরং কিছুটা প্রতিরিতও হবেন তারা।