সরকারী ঘোষণা কার্যকর করার দায়,সরকার -প্রশাসন নেবে না কেন?

0
10

বুধবার সকাল থেকেই সাধারন মানুষের আশঙ্কাকে সত্যি প্র্মাণ করে ৫০০ ও১০০০ টাকার নোট বাতিল হওয়ায় চুড়ান্ত হয়রানির মধ্যে পড়ছেন মানুষ।সবচেয়ে দুরাবস্থা পর্যটক ও হাসপাতালে যাওয়া মানুষজনদের।সরকারী ঘোষনা থাকা সত্বেও হাসপাতালগুলোতে ৫০০ ও১০০০ টাকার নোট গ্রাহ্য হচ্ছে না,এমন কি ট্রেনেও একই অবস্থা।প্রশ্ন হল প্রধাণমন্ত্রী তো ঘোষনা করলেন যে রেল হাসপাতাল বিমান পরিষেবায় নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত আপাতাত কার্যকরি হচ্ছে না,তাহলে মানুষকে এমন দুর্ভোগের মধ্যে পরতে কেন হচ্ছে।যে ঘোষনা সরকার কার্যকর করতে পারে না সে ঘোষনা করার অর্থ কী?কেন্দ্রীয় সরকারের এই নোট বাতিলের সিদ্ধান্তে কাল টাকা,বা জাল টাকা বাতিল হলে সাধারণ মানুষ খুশিই হবে কিন্তু তার জন্য সাধারণ মানুষকে এতটা দুরাবস্থার মধ্যে পরতে হলে তো মুশকিল,তাছাড়া কেন্দ্রাীয় সরকারের নিজস্ব সংস্থা রেল কেন সরকারী ঘোষনা উপেক্ষা করে ৫০০ ও১০০০ টাকার নোট নিতে অস্বীকার করবে,কেন তার জন্য রেলের কর্তৃীপক্ষের কাছে জবাব চাওয়া হবে না? এ রাজ্যের হাসপালগুলোতে সাকাল থেকে মানুষ কান্নাকাটি করছে,প্রশাসন চুপ।সরকারী সিদ্ধান্ত কার্যকর করার দায়িত্ব তো প্রশাসনের,প্রশাসন এমন নিস্ক্রিয় হলে মানুষ যাবে কোথায়।রাজ্য সরকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে,তাই কি মানুষ চূড়ান্ত দুর্ভোগের মধ্যে পরছে দেখেও তারা চুপ থাকছে,ভাবছে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে মানুষের ক্ষোভ আর বারুক,তাহলে তো বলতেই হয় কেন্দ্র ও রাজ্য সব সরকারই আসলে রাজনীতির লাভ ক্ষতির অংক কষছেন আর তাতে পিষ্ঠ হচ্ছেন সাধারণ মানুষ,যন্ত্রনা আর হাহাকার ধ্বনি শোনা যাচ্ছে শুধু তাদেরই।সত্যিই বচিত্র এই দেশ,বিচিত্র গণতন্ত্র।