বনধ ডেকে সিপিএম কী প্রমাণ করতে চাইছে?

সিপিএমের অবস্থা এখন ছন্নছাড়া। কী করবে বুঝে উঠতে পারছেন না নেতারা। নোট নিয়ে কী করবেন কী করবেন যখন ভাবছেন তখন ইস্যু হাইজ্যাক করে নিয়ে গেলেন মমতা। হঠাত্ মনে হল কিছু একটা করা উচিত । তাই সোমবার রাজ্যে( দেশব্যাপী!) ১২ ঘন্টার বনধ ডেকে দিলেন তারা। না আছে প্রস্তুতি, না আছে বনধ করার মত সাংগঠনিক জোর বা ক্যাডারদের মানসিকতা। তাছাড়া সিপিএম মার্কা বামেদের দৌলতে বনধ হাতিয়ারটি অনেক দিন আগেই ভোঁতা হয়ে গেছে। ক্ষমতা হারানোর পর বনধ ডাকলে প্রশাসনের হুমকির জেরে  দলের সমর্থকরা আগের দিনে রাতেই অফিসে হাজির হয়ে যান । তাই  সোমবার আরেকটা ফ্লপ শোর সাক্ষী হবে বাংলা।