হঠাত্ আয়কর হানায় নগদ উদ্ধারের হিড়িক পড়ল কেন? দিল্লি ও ব্যাঙ্গালুরুতে ৬ কোটির বেশি বাজেয়াপ্ত

0
9

নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের পর থেকে রোজই কোথাও না কোথাও পুরনো বা নতুন নোটে কালো টাকার হদিশ মিলছে। বুধবার দিল্লির এক হোটেল আয়কর দফতর ও পুলিসের যৌথ হানা বাজেয়াপ্ত হল ৩ কোটি ২৫ লক্ষ টাকার পুরনো নোট। এই নোটগুলি এমনভাবে বাক্সবন্দি করা হচ্ছিল যাতে বিমানবন্দের স্ক্যানিং মেশিনে তা ধরা না পড়ে। অর্থাত্ দিল্লির বাইরে চালান হচ্ছিল এই হাওলা টাকা। অন্যদিকে একই দিনে ব্যাঙ্গালুরুর এক অ্যাপার্টম্যান্টের একটি ফ্ল্যাট থেকে ২ কোটি ৮৯ লক্ষ টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে আয়কর দফতর। যার মধ্যে ২কোটি ২৫ লক্ষ টাকার নতুন নোট রয়েছে।  কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে কালো টাকা তো কালো টাকা , তা হঠাত্ করে ৮ নভেম্বরের পর বাজেয়াপ্ত হচ্ছে কেন? ৮ তারিখের আগে তো এরকম হানার খবর শোনা যাচ্ছিল না। এত সহজেই এই টাকা ধরার পিছনে কি অন্য কোন গল্প আছে? সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্তকে সফল করার সঙ্গে এটা কি যুক্ত? অনেকেই বলছেন যা বাজেয়াপ্ত হচ্ছে তা আসলে হিমশৈলের চূড়া মাত্র। একদিকে এই হানা চলছে অন্যদিকে বুক ফুলিয়ে জনার্ধন রেড্ডি ও নীতিন গাডকড়িরা কয়েকশা কোটি খরচ করে সন্তানের বিয়ে দিচ্ছেন।  ব্যাপারটা কেমন কেমন লাগছে না!