ভাঙড়ে নারী শিশু বিপন্ন দাবি মহিলা সংগঠন WSS এর

0
12

ভাঙড়ে নারী ও শিশুরা বিপন্ন,প্রশাসন নারী শিশুদেের ওপর নির্বিচার অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে,এমনই অভিযোগ তুললো সর্বভারতীয় মানবাধিকার ও নারী অধিকার সংগঠন ওম্যান   অ্যাগেনস্ট সেক্সুয়্যাল ভ্যায়োলেন্স অ্যান্ড স্টেট রিপ্রেসন, সংক্ষেপে wss । সোমবার এক প্রেস বিবৃতিতে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে,ভাঙড়ে পাওয়ার গ্রিড তৈরিকে সামনে রেখে জমি কেড়ে নিতে সচেষ্ট হয়েছিল শাসক দলের স্থানীয় নেতৃত্ব,কী কারণে জমি নেওয়া হচ্ছে তা জানানো হয়নি গ্রামবাসীদের,সেখান থেকেই গ্রামবাসীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায়।আন্দোলন আটকাতে প্রশাসন মানবাধিকারের যাবতীয় শর্ত উপেক্ষা করতে শুরু করেছে বলে সংগঠনের রিপোর্টে উল্লেক করা হয়েছে।সম্প্রতি ডব্লিউএসএসের ১২ সদস্যের এক প্রতিনিধি দল ভাঙড় সরজমিনে গিয়ে চাঞ্চল্যকর সব অভিযোগ লিপিবদ্ধ করেছেন,সেখান থেকে জানা যাচ্ছে,স্বামীর সঙ্গে গলা মিলিয়ে জমি কেড়ে নেওয়ার প্রতিবাদ করছিলেন ভঙড়ের এক গৃহবধূ,পুলিশ ঐ মহিলাকে ঘরে ঢুকে হিড় হিড় করে টেনে বাইরে নিয়ে আসে,তারপর আছড়ে ফেলে বাড়ির উঠোনে,মহিলা তখন প্রায় বিবস্ত্র,ভ্রূক্ষেপ করেনি পুলিশ।বাপ কাকাদের সঙ্গে প্রতিবাদী স্লোগান দিয়েছিল স্কুল পড়ুয়া জাহাদ মোল্লা,লাঠি দিয়ে মেরে হাত ভেঙে দেয় পুলিশ,তাকেও থানায় নিয়ে গিয়ে আ্যরেস্ট দেখিয়ে কোর্টে তোলা হয়েছিল।ডব্লিউএসএসের তরফে এই রিপোর্টের কপি রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের কাছে পাঠানোর পাশাপাশি আইনি ব্যবস্থা নেওয়ারও প্রয়াস করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।