জুতো পেটাকারী সাংসদের হয়ে সওয়াল কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের?

0
9

বিমানকর্মীকে জুতোপেটা করার ইস্যুতে শিবসেনা সাংসদ রবীন্দ্র গায়েকোয়াড পক্ষেই কার্যত সওয়াল করলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ইস্যুতে এদিন কল্যাণবাবু বলেন ঘটনার তদন্ত চলছে চলুক কিন্তু কোন আইনের বলে বিমান সংস্থাগুলি সাংসদের টিকিট বাতিল করেছে তা জানাক সরকার। সরকারের তরফে জানান হয়েছে বিমানে যাত্রীদের নিরাপত্তার ইস্যুতে কোন সমঝোতা করা হবে না। এদিন চার্টাড বিমানের করে সংসদে হাজির হন রবীন্দ্র গায়েকোয়াড। সংসদে একটি বিবৃতি পাঠ করে রবীন্দ্র গায়েকোয়াড বোঝাতে চেয়েছেন ভাজা মাছটি  তিনি উল্টো খেতে জানেন না  ।

বিমানে সিট নিয়ে বচসার জেরে এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীকে চপ্পল দিয়ে পেটান শিবসেনা সাংসদ রবীন্দ্র গায়কোয়াড। এখানেই শেষ নয়, লোকসভার এই সদস্য বীরদর্পে বলে বেড়াচ্ছেন তিনি চপ্পল দিয়ে ২৫বার ওই কর্মীকে পিটিয়েছেন। ঘটনার সূত্রপাত ২৩ মার্চ সকালে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান পুণে থেকে দিল্লিতে অবতরণের পর। বিমান থেকে নামতে রাজি হয়নি সাংসদ। কারণ তার বিজনেস ক্লাসের টিকিট থাকা সত্ত্বেও প্রতিবারই নাকি তাকে ইকোনমি ক্লাসে সফর করতে হয়। তাই তিনি উচ্চপদস্থ আধিকারিকদেরকে বিমানের মধ্যে ডেকে আনতে বলেন। এতেই শুরু হয়ে যায় বচসা। ক্ষিপ্ত সাংসদ এর পরই জুতো খুলে পেটাতে শুরু করেন ওই কর্মীকে। এর পরও ওই সাংসদের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করা হলেও পুলিস তার বিরুদ্ধে  এতদিনেও কোন ব্যবস্থা নেয় নেই। প্রশ্ন উঠছে বচসার জেরে বিমানকর্মী যদি কোন সাংসদকে জুতো খুলে মারেন তাহলে কি তার বিরুদ্ধে এতক্ষণে ব্যবস্থা নেওয়া হত না?