ভাবাদিঘিতে বিক্ষোভের মুখে পালিয়ে এলেন শাসকঘনিষ্ঠ বিশিষ্টজনেরা

0
10

ভাবাদিঘিতে রেল লাইন পাতার দাবি নিয়ে,ভাবাদিঘির মানুষকে সচেতন করতে গিয়ে এলাকার মানুষের প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়তে হল শাসক দলের এক প্রতিনিধি দলকে। বৃহষ্পতিবার গ্রামবাসীদের প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়ে একপ্রকার এলাকা ছেড়ে পালিয়ে আসতে বাধ্য হল শাসক ঘনিষ্ঠ প্রতিনিধি দল।ভাবাদিঘিতে রেল প্রকল্প হবেই মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর তৃণমূলের অন্দরে চাপ বাড়ছে,স্থানীয় নেতৃবর্গের কাছে বার্তা আসছে মানুষকে যে ভাবেই হোক বুঝিয়ে রেল লাইন পাতা নিশ্চিত করতে হবে।সেই সূত্রেই শাসক ঘনিষ্ঠদের এলাকায় যাওয়া,যদিও তৃণমূলের দাবি ওঁরা সকলেই অরাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব,এলাকা ও আশপাশের বিশিষ্টজন হিসেবেই ওঁরা ভাবাদিঘির মানুষের সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছিলেন।তবে এলাকার মানুষজনেরা এই দাবি নাকচ করে দেন,তাদের বক্তব্য এরা সবাই তৃণমূল ঘনিষ্ট।যেমন দলে ছিলেন আরামবাগ মহিলা কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ বাণীপ্রসাদ সেন,গোঘাটের ব্যাঙ্গাই কলেজের অধ্যক্ষ সরোজ সিনহা,আরামবাগের তৃণমূল বিধায়কের ছেলে পিনাকি সাঁতরা,গোঘাটের বিধায়ক মানস মজুমদারের ঘনিষ্ট সহযোগী প্রসেনজিত বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ। এরা বহিরাগতদের কথায় ভাবাদিঘির মানুষ যাতে বিভ্রান্ত না হন সেই বার্তা দিতে এসে,নিজেরাই তাড়া খেয়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হন।বুধবারের এই ঘটনা শাসক দলের অস্বস্তি আর বাড়ালো বলেই মনে করা হচ্ছে।

ছবিঃ ফাইল