উন্নয়নের বহুমাত্রা

ক্ষমতায় আসার পর থেকেই তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের একটানা স্লোগান উন্নয়ন,এই সরকারের আমলে রাজ্যে নাকি উন্নয়নের বাণ ডেকেছে।উন্নয়নের স্রোত আটকাতেই নাকি বিরোধীরা বার বার চক্রান্ত করছে।একথা ঠিকই বর্তমান সরকারের আমলে রাস্তাঘাটের উন্নতি হয়েছে,রাস্তায় আলো অনেক বেশী হয়েছে,পরিচ্ছন্ন হয়েছে চারপাশ,পার্কগুলোর চেহারাও আগের চেয়ে সুন্দর হয়েছে,মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় শহর ও শহরতলীতে অত্যাধুনিক শৌচালয় তৈরি হয়েছে একের পর এক।হাসপাতালগুলির বাহ্যিক পরিচ্ছন্নতায়ও চোখে পরে।এ সব নিশ্চয়ই উন্নয়নের সূচক,কিন্তু একমাত্র সূচক তো নয়,আর এই কথাটাই ভুলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে,না শুধু সরকারের তরফে নয়,তথাকথিত বিশিষ্টজনদের একাংশও বোঝাতে চাইছেন বর্তমান সরকার যে ভাবে উন্নয়নকে চেনাতে চাইছেন তাই যথার্থ।আমাদের আপত্তিটা এখানেই,যে উন্নয়নের সংজ্ঞাটাকে বড় একমাত্রিক করে তোলার চেষ্টা হচ্ছে।সম্প্রতি সর্বভারতীয় ক্রাইম ব্যুরোর তথ্য বলছে গত কয়েক বছরে নারী নির্যাতন ও অপরাধ মুলক ঘটনা ঘটার ক্ষেত্রে এ রাজ্য একেবারে প্রথমসারিতে  রয়েছে।এই তথ্য উন্নয়নের উল্টোপিঠের গল্পই বলে না কী?রাজ্য জুরে এই মুহূর্তে সাম্প্রদায়িক মেরুকরণের হাওয়া,রাজ্যের উন্নয়নের বার্তা দেয় বুঝি?তাই আমরা চাই উন্নয়নের বহু মাত্রা মানুষের কাছে পরিষ্কার হোক,মানুষ বুঝুক শুধু রাস্তা নয়,প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদেরও পরিচ্ছন্ন হতে হবে,ঘুষখোর মন্ত্রী আমলারা উন্নত রাজ্য,উন্নত পরিবেশের গ্যারান্টি দিতে পারেন না,আর ভোট ভিক্ষুক রাজনীতিকরাও পারেন না সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাহক হতে,এই কঠিন সময়ে সব দায় তাই সচেতন মানুষকেই নিতে হবে।