জয়ললিতার প্রাক্তন গাড়ি চালকের দুর্ঘটনায় মৃত্যু ও উধাও বিপুল অঙ্কের টাকা !

জয়ললিতার প্রাক্তন গাড়িচালক কানাগারাজের দুর্ঘটনায় মৃত্যু কি পরিকল্পিত  খুন? কারণ কয়েক ঘন্টার মধ্যেই জয়জলিতার আরেক প্রাক্তন কর্মী ও কানাগরাজের ঘনিষ্ঠ সায়ান  গাড়ি দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন। মারা গেছেন তার স্ত্রী ও বাচ্চা। পুলিসের প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে এই দুজনই জয়ললিতার কোডানাডের বাংলোর ডাকাতি ও দারোয়ান খুনের সঙ্গে জড়িত । বিষয়টি নিছক ডাকাতি-চুরি বা খুন  নয়। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী জয়ললিতার ওই বাংলোর কোন এক জায়গায়  বিপুল অঙ্কের টাকা লুকোনো রয়েছে সেই খবর জানত কানাগারাজ। সে পরিকল্পনা করেছিল ওই টাকা লুঠের। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই গত ২৩ এপ্রিল ওই বাংলোতে হানা দেয় জনা ১০ এর এক দুষ্কৃতীদল। দারোয়ানকে খুনও করে তারা। কিন্তু ওই টাকা না পেয়ে কয়েকটি দামি ঘড়ি দিয়ে চম্পট দেয় তারা। সম্ভবতই প্রশ্ন উঠছে ওই বিপুল অঙ্কের টাকা গেল কোথায়? তাহলে কি টাকার বিষয়টি জেনে ফেলাতেই সরিয়ে দেওয়া হল কানাগারাজ ও তার সঙ্গীকে? এই টাকার বিষয়টি কি দলের কোন নেতা বা অন্য কেউ জানত? প্রশ্নটা উঠছেই। কিছুদিন আগেই AIDMK এর এক বহিষ্কৃত সাংসদ শশীকলা পুষ্পা জানিয়েছিলেন রাজ্যটা( শুধু তামিলনাড়ু!) চালাচ্ছে মাফিয়ারা। জয়য়ললিতার বাংলোতে বিপুল অঙ্কের টাকার হদিশ না মেলা ও সেই টাকা লুটের পরিকল্পনাকারীর দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ঘটনার সঙ্গে প্রভাবশালীর যোগ থাকাটাই কি স্বাভাবিক নয়?