তামিলনাড়ুতে মন্ত্রী ও আমলাদের ৪০০ কোটি ঘুষ খনি মাফিয়ার!

0
11

তামিলনাড়ুর মন্ত্রী, আমলাদের ৪০০ কোটি টাকা ঘুষ দিয়েছেন বলে দাবি করেছেন বালি মাফিয়া শেখর রেড্ডি।  মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী আয়কর দফতরের তরফে এই তথ্য তামিলনাড়ু সরকারকে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। গত ডিসেম্বর মাসে এই শেখর রেড্ডির বাড়িতে হানা দিয়ে নগদ ১৪২ কোটি টাকা উদ্ধার করেছিল আয়কর দফতর। এর মধ্যে নতুন ২০০০ টাকার নোটে ৩৪ কোটি টাকা পাওয়া গিয়েছিল। উদ্ধার হয়েছিল ১২৭ কেজি সোনাও। ৮৭ দিন জেলে থাকার পর কয়েকদিন হল জেলের বাইরে এসেছে শেখর রেড্ডি। ডিসেম্বর মাসে  আয়কর হানা দেয় তামিলানাড়ুর মুখ্যসচিবের বাড়িতেও। সামনে আসে  শেখর রেড্ডির সঙ্গে তামিলানাড়ুর মুখ্যসচিবের যোগাযোগের  বিষয়টি। এর  জেরে তাকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। শেখর রেড্ডির সঙ্গে শাসকদলের কীরকম ঘনিষ্ঠা ছিল বা রয়েছে তার প্রমাণ মেলে যখন শেখর রেড্ডি  জয়ললিতা হাসপাতালে থাকাকালীন প্রসাদ নিয়ে যেতে দেখা গিয়েছিল । মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী এই খনি মাফিয়া আবার  তিরুপতির তিরুমালা মন্দিরের ট্রাস্টিও। শেখর রেড্ডির সঙ্গে পনিরসিলভমের ছবি প্রকাশ পাওয়া অস্বস্তিতে পড়েছিলেন পনির গোষ্ঠী।  মনে রাখতে হবে  শুধু তামিলনাড়ু নয় ,অন্ধ্র – কর্ণাটকে বিজেপির প্রাক্তনমন্ত্রী তথা ঘনিষ্ঠ খনি মাফিয়া জনার্ধন রেড্ডির বিরুদ্ধেও নানা মন্ত্রীকে ঘুষ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। আঞ্চলিক স্তরে বালিয়া বা খননের জন্য এই পরিমাণ ঘুষ দেওয়া হয়ে থাকলে ( এরাজ্যে বালিয়া মাফিয়ারা কাদের কত টাকা দিয়েছে?) দেশের কয়লা, তেল বা প্রাকৃতিক গ্যাস ও মূল্যবান ধাতুর ক্ষেত্রে কী পরিমাণ টাকার লেনদেন চলছে তা সহজেই  অনুমেয়। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশের মতে দেশের জল – জমিন  ও প্রাকৃতিক সম্পদ লুটের এই কারবারের নামই হল ‘শিল্পায়ন’!