বিজেপি সাংসদকে ‘হ্যানি ট্রাপে’ ফাঁসানোর অভিযোগে গ্রেফতার এক মহিলা!

0
11

 ধর্ষিণের অভিযোগকে পাত্তা না দিয়ে অভিযোগকারিনীকেই গ্রেফতার করল দিল্লি পুলিস।  এক মহিলা তাঁকে ফাঁসিয়ে ব্ল্যাকমেল করতে চাইছে। বিজেপির সাংসদ কেসি প্যাটেলের এই অভিযোগের ভিত্তিতেই ওই মহিলাকে গ্রেফতার করেছে পুলিস।  বিজেপির ওই সাংসদের দাবি ৩মার্চ ওই মহিলা তার কাছে সাহায্য চাইতে এসেছিলেন। ২৮ মার্চ তিনি ওই মহিলার বাড়িতে যখন যান সেই সময় ঠান্ডা পানীয়র সঙ্গে নেশার বস্তু মিশিয়ে তাঁকে খাওয়ান ওই মহিলা। ( যিনি আবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী বলে জানাচ্ছে ndtv।)  সাংসদের দাবি এর পরই তার আপত্তিজনক অবস্থার কিছু ছবি তুলে  ফেলেন ওই মহিলা। সাংসদের কাছে ৫ কোটি টাকা চেয়ে ব্ল্যাকমেল করতে থাকেন ওই মহিলা। মহিলার অভিযোগ অবশ্য ঠিক উল্টো। একাধিকবার নাকি ওই সাংসদ তার সরকারি বাসভবনে নিয়ে গিয়ে তাকে ধর্ষণ করেছে। বিষয়টি  প্রকাশ্যে না আনার জন্য ওই মহিলাকে নাকি হুমকিও দিয়েছেন বিজেপির গুজরাটের ওই সাংসদ। পুলিসের দাবি কিছুদিন আগে এক কংগ্রেস নেতার বিরুদ্ধে ওই রকম অভিযোগ এনেছিলেন ওই মহিলা। ধোপে টেকেনি। এটা নাকি একটা হ্যানিট্রাপ চক্রের কাজ। সত্যি কী তা বলা মুশকিল। তবে সাংসদ কেন এক অপরিচিত মহিলার বাড়িতে গেলেন সেই প্রশ্ন অবশ্যই উঠবে। তাছাড়া ৬৭ বছরের এক সাংসদকে ইচ্ছের বিরুদ্ধে আপত্তিজনক অবস্থায় ফেলে দেওয়ার বিষয়টিও কেমন কেমন ঠেকছে। হ্যনি ট্রাপ বা ধর্ষণ যাই হোক না কেন একজন সাংসদের চারিত্রিক ছবি কি এতে উজ্জ্বল হল?