প্রয়াত নকশালবাড়ি আন্দোলনের অন্যতম স্থপতি খোকন মজুমদার

নকশালবাড়ি আন্দোলনের ৫০বছর পূর্তিতে যখন বিভিন্ন নকশালপন্থী সংগঠন গোটা দেশেই নানা অনুষ্ঠানের আয়োজনে ব্যস্ত,ঠিক সেই সময়েই চলে গেলেন নকশালবাড়ি  অন্যতম স্থপতি খোকন মজুমদার।গত ২৯মে উত্তর বঙ্গের এক নার্সিং হোমে মৃত্যু হয় খোকন মজুমদারের।যৌবন বয়সে খোকন মজুমদার ব্যক্তিগত সুখ,কেরিয়ার তৈরির মোহ ছেড়ে বেড়িয়ে এসে শোষন মুক্ত সাম্য সমাজ তৈরির লড়াইতে যুক্ত হয়েছিলেন।জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত সেই লড়াইকে সঠিক বলে মেনেছেন খোকন মজুমদার।জঙ্গল সাঁওতাল,কানু সান্যালের  ঘনিষ্ঠ খোকন মজুমদার এক সময় সৌরিন বসুর সঙ্গে চিনেও গিয়েছিলেন,দেখা করেছিলেন মাও সে তুঙের সঙ্গেও।দীর্ঘ দিন অসুস্থ ছিলেন,শেষ কয়েক বছর বিছানা থেকে উঠতে পারতেন না পক্ষাঘাতের ফলে।তবু এদেশের বুকে বিপ্লবের বজ্রনির্ঘোষ শোনার স্বপ্ন দেখা ছাড়েননি কোনদিন।খোকন মজুমদারের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে একাধিক নকশালপন্থী সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে খোকন মজুমদারের জীবন সংগ্রাম লড়াকু-প্রতিবাদী মানুষের কাছে প্রেরণা হয়ে থাকবে।