জেলেও চলতো শশীকলার দফতর- ফের রিপোর্ট DIG জেলের

0
20

জেলের মধ্যেই পার্টি অফিস। বেঙ্গালোরের সেন্ট্রাল জেলে জেল সুপারের পাশেই একটা ঘরে চেয়ার টিবিল পেতে চলতো শশীকলার অফিস। সেখানেই আসতো শশীকলার সঙ্গে দেখা করতে পার্টির নেতারা। আর এই সব ছবি cctv থেকে মুছে ফেলা হয়েছে । মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী অন্তত এমনটাই নাকি সরকার ও পুলিসের সর্বোচ্চ পর্যায় জমা দেওয়া তার দ্বিতীয় রিপোর্টে জানিয়েছেন DIG জেল ডি রূপা ।

জেলের মধ্যেই ২ কোটি টাকা ঘুষ দিয়ে শশীকলার রান্না ঘর তৈরির রিপোর্ট দেন এই মহিলা জেল আধিকারিক। এই রিপোর্ট মিডিয়ায় ফাঁস হতেই তাঁকে নোটিস ধরায় সিদ্ধারামাই সরকার। দুর্নীতির রুটিন তদন্তের পাশাপাশি মিডিয়ার সামনে মুখ খোলায় নোটিস ধরান হয়েছে রূপাকে। এতে যে তিনি হার মানতে রাজি নন তা ফের বুঝিয়ে দিলেন DIG রূপা।


ছবি ndtvএর সৌজন্যে