খোলা হাওয়ার সন্ধান মিলল না,সভা বাতিল করতে বাধ্য করলো হামলাবাজরা

0
15

এ রাজ্যে গণতান্ত্রিক মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে কী? নাগরিকদের সাধারণ গণতান্ত্রিক অধিকারগুলো কতটা সুরক্ষিত? তা নিয়েই আলোচনা করবে বলে মুকুল রায়ের একদা ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিতদের উদ্যোগে খোলা হাওয়ার সন্ধানে নামের একটি সংগঠন বুধবার কলকাতার রামমোহন সভাগৃহে আলোচনা সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে কুণাল ঘোষ,অমিতাভ মজুমদার,প্রদীপ ঘোষ,ছাড়াও তৃণমূলের আর কিছু বিধায়ক ও কাউন্সিলর উপস্থিত ছিলেন। রাজনীতির বাইরেও বেশ কিছু মানুষকে এই সভায় আমন্ত্রন জানানো হয়েছিল।উদ্যোক্তাদের অভিযোগ সভা চলাকালীন তৃণমূলের একদল কর্মী সমর্থক এসে সভার কাজে বাঁধা দিতে থাকে,তারা কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়ে বলতে থাকেন সারদায় অভিযুক্তদের গণতন্ত্র নিয়ে জ্ঞান দেওয়ার অধিকার নেই,এমনকী ঐ সভাকে তৃণমূল ভাঙার চক্রান্ত বলে উল্লেক করে তৃণমূলি কর্মী সমর্থকরা হৈ হট্টোগোল শুরু করে দেয়। শেষ পর্যন্ত সভা বাতিল করতে বাধ্য হন উদ্যোক্তারা। আয়োজকদের পক্ষে জানানো হয় তারা হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কোন প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টাই করেন নি কারণ তারা চেয়েছিলেন এই আচরণের মধ্য দিয়েই সাধারণ মানুষের কাছে পরিষ্কার হোক এ রাজ্যের গণতন্ত্রের আসল চেহারা।আইন মেনে হল ভাড়া করেও যে স্বাধীন মত এ রাজ্যে প্রকাশ করা যায় না তাই প্রমাণ হলো।এদিন সভার বাইরে চোখে পড়ার মতো পুলিশের উপস্থিতি থাকলেও তারা সভা বানচাল করতে আসা কারোর বিরুদ্ধেই কোন ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টাই করেনি বলে জানান সভার উদ্যোক্তারা।কুণাল ঘোষের অভিযোগ গোটাটাই সরকারি মদতে হয়েছে।তবে একই সঙ্গে তার বক্তব্য তাকে যে শাসক দল গুরুত্ব দিচ্ছে এদিনের ঘটনা তারই প্রমাণ,এটা তার প্রয়াসের প্রেরণা হবে বলে কুণালের দাবি।এদিনের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত ছিলেন আইনজীবী ও কংগ্রেস নেতা অরুনাভ ঘোষ,তার কথায়,প্রমাণ হয়ে গেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গনতান্ত্রীক আউট লুক নরেন্দ্র মোদীর চেয়েও খারাপ।প্রসঙ্গত বছর দুয়েক আগে এ রাজ্যে গণতন্ত্রের পরিসরকে বাড়িয়ে তুলতে খোলা হাওয়া নামের একটা সংগঠন তৈরির কাজে সহায়তা করেছিলেন তৃণমূল নেতা মুকুল রায়,সে সময় খোলা হাওয়া নামে একটি পত্রিকা প্রকাশ অনুষ্ঠানে মুকুল রায় উপস্থিতও ছিলেন। তবে এদিন যখন খোলা হাওয়ার সন্ধানে আয়োজিত সভা তৃণমূলি সমর্থক কর্মীরা গা জোয়ারি করে বন্ধ করে দিচ্ছিল তথন মুকুল রায় মমতারই সঙ্গে জেলা সফরে ব্যস্ত ছিলেন। মুকুল রায়ের একসময়ের সঙ্গী অমিতাভ মজুমদার,প্রদীপ ঘোষরা কী তবে মুকুল রায়কে বাদ দিয়েই খোলা হাওয়ার সন্ধান করছেন,প্রশ্নটা থেকেই গেল।