রোজভ্যালির হোটেলে হামলা,প্রতারিত আমানতকারীদের

0
11

রোজভ্যালিতে টাকা রেখে প্রতারিত হওয়া আমানতকারীরা বৃহস্পতিবার দুপুরে রোজভ্যালির পার্কসার্কাসের হোটেলে জড় হয়ে ব্যাপক ভাঙচুড় চালালো।বিশাল পুলিশ বাহিনী দিয়েও প্রতারিত আমানতকারীদের প্রতিহত করা সম্ভব হয়নি,প্রতারিত মানুষের রোষ এতটাই তীব্র ছিল যে তারা পুলিশের বেষ্টনি ভেঙে হোটেল চত্ত্বরে ঢুকে পড়ে ভাঙচুড় করে।পরে লালাবাজার থেকে বাড়তি পুলিশ পাঠিয়ে অবস্থা নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করা হয়।আমানতকারীদের অভিযোগ তাদের টাকা মেরে দেওয়ার পরেও প্রশাসনের তরফে টাকা ফেরানোর কোন প্রয়াস দেখা যাচ্ছে না,তদন্ত চলছে তো চলছেই,বছরের পর বছর চলে যাচ্ছে,নিরুপায় হয়েই তারা বিক্ষোভ দেখাতে রোজভ্যালির হোটেলকে টার্গেট করেছে।বিক্ষোভকারীদের বক্তব্য যে চিটিংবাজ সংস্থা সাধারণ মানুষের কোটি কোটি টাকা মেরে দেয়,সেই  সংস্থারই হোটেল,সোনার দোকান,টিভি চ্যানেল চলে কোন যুক্তিতে,এই সব ব্যবসার লাভের টাকা কারা খাচ্ছে,কেন সরকার প্রশাসন এসব বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে না?বিভোক্ষকারীরা সরকারকে প্রতারিত মানুষের টাকা ফেরত দিতে উদ্যোগি হওয়ার দাবি তোলে,রোজভ্যালির অন্য সংস্থাগুলি বন্ধ করার দাবিও তোলেন প্রতারিত আমানতকারীরা।রোজভ্যালির বিরুদ্ধে অবৈধ চিটফান্ড চালানোর অভযোগে,প্রধান কর্তা গৌতম কুন্ডু সহ প্রধান প্রধান মাতব্বররা একে একে গ্রেপ্তার হয়ে যাওয়ার  পরেও,রোজভ্যালির টিভি চ্যানেল,খবরের কাগজ,হোটেল ব্যবসা,সোনার দোকানের ব্যবসা কিভাবে বহাল তবিয়তে চলতে পারে তা নিয়ে অবশ্য আগেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল,এমনকী স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রীও একবার এ প্রশ্ন তুলেছিলেন।