যে কেউ চাইলে বিজেপিতে যেতে পারে,নাম না করে মুকুল রায়কে কটাক্ষ মমতার

0
6

তাঁর দলের কেউ কেউ যে গোপনে বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন ও দল ভাঙ্গার নানা কৌশল চালিয়ে যাচ্ছেন,তা নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।শুক্রবার নিজের বাস ভবনে তৃণমূল কংগ্রেসের বিশেষ কোর কমিটির মিটিং ডেকে ছিলেন মমতা,সেখানেই দলের সাংগঠনিক বিষয়ে নানা সিদ্ধান্ত ঘোষণার পাশাপাশি,তিনি জানান কেউ মনে করলে বিজেপিতে চলে যেতে পারেন,তিনি কাউকে বাধাঁ দেবেন না,তবে দলে থেকে তলায় তলায় বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে দলের ক্ষতি করতে চাইলে তা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া হবে না।মমতার এরকম হুশিয়ারিতে দলের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়ায়।সবাই বুঝতে পারেন নাম না করেও মুকুল রায়কে উদ্দেশ্য করেই দলনেত্রীর এই বার্তা।তৃণমূল সূত্রের খবর এদিন বৈঠকে পঞ্চায়েত ভোট ও রাজ্যে সাম্প্রদায়িকতা রোধের বিষয়ে নেত্রী নানা পরিকল্পনার কথা বললেও,দলের ভেতরে একশ্রেণীর নেতাদের কর্মকান্ড নিয়ে তিনি যে বেশ চিন্তিত তা ভালমতো বোঝা গেছে।কেউ কেউ বলছেন এতদিন মমতা একতরফা দল ভাঙ্গানোর খেলা খেলে এসেছেন,এবার তার নিজের দল ভাঙ্গার আশঙ্কা তাঁকে তাড়া করতে শুরু করেছে।মুখে না বললেও মুকুল রায়ের গতিবিধি যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে যথেষ্ঠ চাপে রেখেছে তা তাঁর কথাবার্তাতেই বোঝা যাচ্ছিল।তবে মুকুল রায় এ নিয়ে কোন মন্তব্য করতে চান নি,বরং তাঁর দাবি তিনি তৃণমূল পরিবারের সদস্যই আছেন।দলে তাঁর ক্ষমতার ছাটাই নিয়েও মন্তব্য এড়িযেছেন এই পোড়খাওয়া রাজনীতিক,তাঁর কথায় দলের সাধারণ একজন কর্মী হিসেবে থাকতেও তাঁর কোন আপত্তি নেই।রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে মুকুল রায়ের এই বিনয় নতুন চ্যালেঞ্জের প্রস্তুতিও হতে পারে।