সাংসদ সৌগত রায়কে সিবিআইয়ের জেরা

0
8

পুজোর আগেই নারদায় অভিযুক্ত সব তৃণমূল সাংসদকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ সেরে ফেলবে সিবিআই,এমনটাই খবর ছিল,সেই সূত্র অনুযায়ী বুধবারও তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়কে জেরা করলো সিবিআই অভিসাররা।কেন নারদা থেকে টাকা নিয়েছিলেন,সেই টাকা কোথায় খরচ করেছেন সে বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাওয়া হয় সৌগত রায়ের কাছে।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর সৌগত রায়ের জবাবে তদন্তকারী অভিসাররা খুশি হতে পারেন নি বলেই সূত্রের খবর।তাঁকে আর জেরা করা হতে পারে,তাঁর কাছ থেকে বেশ কিছু নথি চেয়েছে সিবিআই,এমনটাও জানা যচ্ছে।প্রসঙ্গত একাধিকবার হাজিরা এড়িয়ে এদিন নিজাম প্যালেসে সিবিআইয়ের দপ্তরে এসেছিলেন সৌগত রায়।বার বার হাজিরা এড়িয়ে তৃণমূল সাংসদরা যে ভাবে নিজেদের খেয়াল খুশিমত সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দিতে আসছেন তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে,কেন গুরুতর এই অভিযোগের পরেও সিবিআই যথেষ্ট কড়া অবস্থান নিতে পারছে না এদের বিরুদ্ধে,কেন তদন্ত ক্রমেই দীর্ঘমেয়াদি হয়ে যাচ্ছে,এসব প্রশ্নে রাজনৈতিক মহল সরগরম।এই বিষয়টা নিয়ে রাজ্য ও কেন্দ্রের গোপন বোঝাপড়া আছে বলেও চর্চা আছে নানা মহলে।সবচেয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূলেরই সাসপেন্ডেড সাংসদ কুণাল ঘোষ,তাঁর মতে কাউকে এখন গ্রেপ্তার করা হবে না,কেন্দ্রের কাছ থেকে গোপন যোগাযোগের ভিত্তিতে এই প্রতিশ্রুতি আদায় করার পরেই দলে দলে সাংসদদের সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দিতে পাঠান হচ্ছে।কুণালের অভিযোগ সত্যি হলে,বুঝতে হবে তদন্তের নামে গোটাটাই একটা কৌশলি খেলা,রাজনীতির খেলা।