ফুটবলার স্নেহাশিসের মৃত্যুতে অভিযুক্ত তৃণমূল কাউন্সিলরের স্বামী,সর্বত্রই বাড়ছে কাউন্সিলরদের দাপাদাপি

পোর্ট ট্রাস্টের ফুটবল খেলোয়াড় স্নেহাশিস দাশগুপ্তের রহস্য মৃত্যু ঘিরে রহস্য ক্রমশ গভীর হচ্ছে। শ্রীরামপুর থানা অভিযোগ নিতে টালবাহানার করার পর অবশেষে জিআরপিতে FIR দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর ও তার স্বামী। অভিযোগ স্নেহাশিসকে মারধরের সময় শাসকদলের কাউন্সিলরের স্বামী পিন্টু নাগ নাকি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পিন্টুবাবু। স্নেহাশিসের মৃত্যুর রহস্য কোনদিনও কাটবে কিনা তা এখনই বলা সম্ভব নয়। আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে তা অনুমান করা যায়। কিন্তু কোন এক কাউন্সিলরের এই আচরণ কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা  নয়। কলকাতা শহর ও শহরতীলর প্রায় সব কাউন্সিলরই এক একজন পাড়ার দাদা। প্রমোটিং , সিন্ডিকেট যেমন তাদের দ্বারাই নিয়ন্ত্রিত হয় তেমনই পাড়ার সমস্ত বিষয় তারাই শেষ কথা বলে থাকেন। শ্রীরামপুরে মৃত্যুর সঙ্গে কাউন্সিলরের স্বামীর নাম জড়ানোয় বিষয়টি মিডিয়ার আলোতে এসেছে । কিন্তু এই মাতব্বরদের দৌরাত্ম্য প্রায় প্রতিদিন সর্বত্রই লক্ষ করা যায়। অবশ্য তা দেখতে চাইলে।