GST এর আজব কাহিনী? লবি না থাকলে ছাড় নেই?

বড় শিল্পপতি ও কারবারিদের স্বার্থে ও কর আদায়ের কেন্দ্রীকরণ করতে তড়িঘড়ি  GST চালুর সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। কিন্তু এর জেরে একদিকে ছোট ব্যবসায়ীদের কারবার যেমন গুটিয়ে যাবার জোগাড় তেমনই টান পড়েছে আর্থিক বৃদ্ধির হারে। আর তাই নানা ছাড়ের কথা ঘোষণা করেছে GST  কাউন্সিল। যে যত বড় সংগঠিত বা লবির জোর বেশি তাকে বেশি ছাড়। এই যেমন স্বর্ণ শিল্পে ৫০ হাজার কেনাকাটিতে এখন আর প্যান দাখিল করতে হবে না। অন্যদিকে একাধিক ক্ষেত্রে GST কেন বসান হল তা নিয়ে ওঠা উচিত প্রশ্ন। যেমন স্বাস্থ্য বিমায় GST চাপান হয়েছে ১৮ শতাংশ। স্বাস্থ্য বিমায় কেন বসবে gst?  সরকার স্বাস্থ্য পরিষেবা থেকে ক্রমশ হাতগুটিয়ে নেওয়ায় ব্যঙের ছাতার মত গজিয়ে উঠেছে বেসরকারি নার্সিং হোম। উপায় না থাকায় তাই বাধ্য হয়েই বিমা করাচ্ছেন মধ্যবিত্তরা। অথচ তাতেও GST।  সার্ভিস ট্যাক্সের জমানায় স্বাস্থ্য বিমার প্রিমিয়াম ১৫ শতাংশ দিতে হত সার্ভিস ট্যাক্স। gst চালু হওয়ায় ১৫ থেকে তা বেড়ে হয়েছে ১৮ শতাংশ। GST জমানায় বলা হচ্ছে বছরে ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হলে তার জন্য GSTতে নথিভুক্ত করতে হবে না। অথচ যদি সেই ব্যবসায়ী ৫০০ টাকার পণ্যও পার্শ্ববর্তী রাজ্যে পাঠায় তাহলেও নাকি GST দিতে হবে। এরকম নানা অসঙ্গতি ও অস্বচ্ছটা ভরপুর পণ্য পরিষেবা কর। যার লবি নেই তার কথা বলবে কে, শোনার প্রশ্নই উঠছে না।