বড় ছবি বা পোষ্টারে আদালতের মানা

নেতাদের বড় বড় ছবি বা কার্ট আউটে এলাকা ভরিয়ে তোলাটা ভারতে বিশেষ করে দক্ষিণ ভারতের রাজনীতিতে পরিচিত রীতি।এ রাজ্যেও গত কয়েক বছরে এই রীতি জাকিয়ে বসেছে।রাস্তাঘাটতো বটেই সাধারণ নাগরিকের ব্যক্তিগত পরিসরেও নেত্রী ও নেতাদের বিশাল বিশাল কার্ট আউট শোভা পেতে দেখা যায়।এবার সাধারণ নাগরিকের ইচ্ছা অনিচ্ছাকে গুরুত্ব না দিয়ে এভাবে বড় বড় ছবি টাঙানোর বিরুদ্ধে বিধিনিষেধ জারি করলো তমিল নাড়ু হাইকোর্ট।নেতা নোত্রীদের নির্বিচার হোর্ডিং লাগানোর বিরুদ্ধে এক জনস্বার্থ মামলার রায় ঘোষণা করে আদালত জানিয়ে দিল,সাধারণ মানুষের অসুবিধা হতে পারে এমন জায়গায় হোর্ডিং লাগানো যাবে না।জীবীত নেতা নেত্রীদের নির্বিচার ছবি লাগানোকে রীতিমতো কটাক্ষ করে আদালত জানায়,যে নেতা নেত্রীরা বেঁচে আছেন তাঁদের উচিত মানুষের সেবা করে,তাদের বিশ্বাস অর্জন করে,সাধারণের মনে জায়গা করে নেওয়া,দেওয়ালে দেওয়ালে ছবি লাগিয়ে নয়,ছবি লাগিয়ে নিজেদের মহত প্রমাণ করা যায় না।আদালতের পর্যবেক্ষন বড় বড় হোর্ডিং ব্যানারের জন্য অনেক সময় যান চলাচলে ও পথ চিনতে সাধারণ নাগরিকদের সমস্যায় পড়তে হয়।এই সমস্যা না তৈরি করাই বাঞ্ছনীয়  বলে আদালতের রায়।

আদালত রায় দিলেও এদেশের প্রচার সর্বস্ব নেতা বা নেত্রীরা এই রায়কে কতটা মান্যতা দেবেন তা নিয়ে অবশ্য সন্দেহ থাকছেই।

,