জেল থেকে স্ত্রীকে চিঠিঃ জেলের এই শীত হয়তো জীবনের শেষ শীত জানালেন’মাওবাদী’সাইবাবা

মাওবাদী তকমা সেঁটে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়ে নাগপুর জেলে বন্দি করে রাখা হয়েছে ৯০ শতাংশ শারীরিক প্রতিবন্ধী অধ্যাপক জিএন সাইবাবাকে। জেল থেকে স্ত্রীকে লেখা চিঠিতে সাইবাবা জানিয়েছেন জেলে তাঁর কাছে কোন কম্বল বা সোয়েটার নেই। ঠান্ডায় তাঁর শরীরের যন্ত্রণা বাড়ছে বলে চিঠিতে জানিয়েছেন সাইবাবা। ‘মাওবাদী’ এই অধ্যাপক স্ত্রীকে জানিয়েছেন ৮ মাস ধরে এক পশুর মত জীবনযাপন করছেন তিনি। যেনতেন ভাবে গত ৮ মাস তিনি তা কাটিয়েছেন তবে  এই শীত তার জীবনের শেষ শীতকাল হয়ে যেতা পারে বলে আশঙ্কা করছেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের  এই অধ্যাপক। স্ত্রীকে তার জামিনের জন্য সিনিয়ার আইনজীবী নিয়োগের জন্য বলেছেন সাইবাবা। সাইবাবার এই চিঠিতে তার মানসির অবসাদের ছবিও ফুটে উঠছে। পুরো চিঠি প্রকাশ করেছে দ্য সিটিজেন নামে একটি খবরের ওয়েবসাইট। ২০১৪ সালের মে মাসে দিল্লি থেকে কার্যত অপহরণ করে গ্রেফতার করে মহারাষ্ট্রের পুলিস। তার পরে দীর্ঘ সময় নাগপুর জেলের আন্ডা সেলে থাকার পর কিছুদিন চিকিত্সার জন্য   জামিন পান সাইবাবা।  এবছর মার্চ মাসে মহারাষ্ট্রের এক আদালত সাইবাবার সঙ্গে jnu এর প্রাক্তনছাত্র হেম মিশ্র ও ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক প্রশান্ত রাই ও গড়চিরৌলির দুজন বাসিন্দাকে মাওবাদীদের সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার ‘অপরাধে’ যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দেয়।