প্রিয়রঞ্জন দাসমুন্সি প্রয়াত। আর কিছু অপ্রিয় প্রশ্ন!

প্রায় ৯ বছর কোমায় থাকার পর মারা গেলেন কংগ্রেস  নেতা প্রিয়রঞ্জন দাসুমন্সি। প্রিয় সমর্থকদের জন্য দুঃখের খবর অবশ্যই। ৯ বছর অ্যাপলো হাসপাতালের মৃতপ্রায় অবস্থা থেকে মুক্তিও পেলেন তিনি। এই সময় কয়েকটি প্রশ্ন না করলেই নয়।  প্রিয়র শারীরিক অবস্থার উন্নতির কোন সম্ভবনা না থাকায়  অ্যাপোলো হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রিয়রঞ্জন দাসমুন্সিকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেছিল, কিন্তু কেন নিয়ে যেতে চায়নি তার পরিবার? ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী ২০১১সালে প্রিয়র জন্য হাসপাতালের বিল হত মাসে প্রায় ৬ লক্ষ টাকা। ২০১৪ সালে মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী সেই খরচ দিনে দাঁড়িয়ে ছিল ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকায়। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তা আরো বাড়ার কথা। এই বিপুল অঙ্কের জনগণের করের টাকা ,এক কোমায় থাকা নেতার, যারা ভাল হওয়ার কোন সম্ভাবনা ছিল না, তার জন্য খরচ কি খুব যুক্তি সঙ্গত ছিল?