একটি ল্যাবই চিকিত্সকদের কমিশন দিয়েছে ২০০ কোটি টাকা!

খবরটা চমকে ওঠার মত নয়, অঙ্কটাতে বটে। ব্যাঙ্গালুরুর বিভিন্ন ল্যাবে হানা দিয়ে আয়কর দফতর হদিশ পেয়েছে প্রায় ১০০ কোটি টাকার আয় বহির্ভূত সম্পত্তির। এখানেই শেষ নয় শুধুমাত্র একটি ল্যাব থেকে পাওয়া তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে প্রায় ২০০ কোটি টাকা তারা চিকিত্সকদের রোগীদের টেস্ট রেফার করার জন্য কমিশন দিয়েছে। ভিন্ন ভিন্ন ল্যাবে চিকিত্সকদের জন্য বরাদ্দ্য কমিশনের হার ভিন্ন। ২০ থেকে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত রয়েছে এই হার। কমিশন দেওয়া হয়েছে কোথাও বা খামে করে নগদে , আর কোথায়  ভুয়ো রোগী দেখার নাম করে ফি হিসাবে।