মুখ্যমন্ত্রীর দাবি এ রাজ্যেই নরীরা সবচেয়ে নিরাপদ,অথচ স্কুলেও শ্নীলতাহানি চলছে

বিজেপির তিন তালাক বিলের বিরোধিতা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন এই বিল মুসলিম মহিলাদের ক্ষতি করবে।তাঁর দাবি ছিল এ রাজ্যে মহিলারা সবচেয়ে নিরাপদ,তাঁরাই সবচেয়ে বেশী নরী নিরাপত্তা দিচ্ছেন।পরিসংখ্যান অবশ্য সে কথা বলে না,বলে তার উল্টোটাই।তবে এ দেশের রাজনীতিকরা কবেই বা সত্য পরিসংখ্যানের উপর ভিত্তি করে কোন কথা বলেন!তবে এবার মমতার উদ্ভট দাবিকে লজ্জা দিতে সামনে চলে এল আর কিছু ঘটনা।মঙ্গলবারই বারাসাতের একটি স্কুলে এক পড়ুয়া কিশোরীর শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটেছে।এই ঘটনায় গোটা স্কুলে উত্তেজনা ছড়ায়।এদিনই রাজার হাটের এক মহিলাকে চাকরী দেওয়ার নামে সোনাগাছিতে এনে বেঁচে দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করেছে।হাঁ এ রাজ্যে মহিলারা এখন এতটাই নিরাপদ যে কোন বাড়ি থেকে গৃহবধূকে চাকরীর দেওয়ার নামে নিয়ে গিয়ে দেহব্যবসায়ীদের কাছে বেঁচে দিতেও দুষ্কৃতীরা ভয় পায় না।কবে যে এ দেশের রাজনীতিকরা নিজেদের লাগামহীন মিথ্যাচারিতার জন্য লজ্জা পেতে শিখবেন কে জানে!

,