যার ফ্ল্যাট থেকে ২ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা বাজেয়াপ্ত তাঁকে গ্রেফতার না করে কেয়ারটেকারকে গ্রেফতার কেন?

দাসপুরের একটি তোলাবাজির মামলায় তদন্তের জেরে প্রাক্তন IPS ভারতী ঘোষের ফ্ল্যাটে হানা দিয়ে ২ কোটি ৪০ লক্ষ নগদ বাজেয়াপ্ত করেছে সিআইডি। আগেই গ্রেফতার করেছে ফ্ল্যাটের কেয়ারটেকারকে। অভিযোগ সে নাকি  টাকা পাচারের সঙ্গে যুক্ত ছিল। যার ফ্ল্যাট থেকে টাকা পাওয়া গেল, তোলাবাজির কারণে যার বিরুদ্ধে পুলিস তল্লাশি করছে তাঁকে কি গ্রেফতার আগে করা উচিত ছিল না সিআইডির? আসলে পুলিস গরীব, আম আদমিকে গ্রেফতার করার আগে একবারও ভাবে না। অন্যদিকে প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে অঙ্ক কষে এগোয় তারা।