শোভন নাকি মমতার কথাও শুনছেন না!

মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় নাকি তাঁর মায়ের কথা শুনছেন না। তার মা মানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মিডিয়ার সামনে এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেছেন শোভনের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু ঠিক কোন কথা শোভন মমতার শুনছেন না তা স্পষ্ট করেননি রত্না। রত্নার দাবি তিনি ২২ বছর ধরে সুখেই ঘর সংসার করছিলেন। কিন্তু অল্প  দিনের মধ্যে  শোভনের  কী করে এতটা পরিবর্তন ঘটলো তা তিনি বুঝতে পারছেন না।

পারিবারিক অশান্তির জেরে  বেশ কিছুদিন ধরেই বিব্রত কলকাতার মহানাগরিক শোভন চট্টোপাধ্যায়। জল্পনা এক মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার জেরেই নাকি পারিবারিক অশান্তি শুরু। আগে ওই মহিলার সঙ্গে আরেক মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠতার গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। শোভন মিডিয়াকে জানিয়েছেন এক কাপড়ে তিনি  পৈত্রিক বাড়ি ছেড়ে চলে এসেছেন। তবে তা করেও নাকি শান্তি নেই। রবীন্দ্র সরোবর থানা এলাকায় তাঁর বর্তমান ঠিকানা  থেকেও নাকি তার স্ত্রী দুষ্কৃতী লাগিয়ে তাঁকে উত্খাত করতে পারেন বলে থানা অভিযোগ করেছেন শোভন। স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া আগেই থানা পর্যন্ত গড়িয়েছে। শোভনের স্ত্রীর দাবি ওই ফ্ল্যাট তাঁর ভাইয়ের। যে কোন সময় নোটিস দিয়ে মেয়র করে চলে যেতে বলতে পারেন তিনি। তার জন্য দলবল নিয়ে যেতে হবে কেন? স্বামী স্ত্রীর কোন্দল দলও ভাল ভাবে নেইনি। জল্পনা শুরু হয়েছে মেয়র থাকবেন তো শোভন চট্টোপাধ্যায়?