নারদায় স্ত্রীকে ঢাল হিসাবে ব্যবহার করেছিলেন অথচ তাঁর সঙ্গেই সম্পর্কে ইতি টানতে চাইছেন মেয়র!

টেলিভিশনে সামি ও হাসিন জাহানের দাম্পত্য কলহের পাশাপাশি কলকাতা পুরসভার মহানাগরিকের পারিবারিক অশান্তিও এখন মুখরচক খবর হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারো ব্যক্তিগত বিষয় এত বিস্তারিতভাবে পরিবেশন নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই পারে। কিন্তু যেটা তালেগোলে হারিয়ে যাচ্ছে যে নারদায় মেয়র অন্যতম অভিযুক্ত সেইকাণ্ডে তো ঢাল হিসাবে নিজের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়কে ব্যবহার করেছেন বলে মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগ। কয়েকমাস আগে যে স্ত্রীকে দিয়ে নারদার স্যামু ম্যাথুয়েলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন মেয়র  তাঁকেই বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিস পাঠাতে হল শোভন চট্টোপাধ্যায়কে! মেয়রের স্ত্রী মিডিয়াকে জানিয়েছেন স্বামীর বিরুদ্ধে তার কোন অভিযোগ নেই তবে যে মহিলার সঙ্গে ( বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়) ঘনিষ্ঠতাকে কেন্দ্র করে এত বিতর্ক তার বিরুদ্ধে কোন আক্রমণ হলে তার জন্য মেয়র বুক পেতে দিতে রাজি থাকলেও বৈশাখির নাম পর্যন্ত  শুনতে চাননা রত্না। মিডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে মেয়র পত্নী জানিয়েছেন তিনি কখনও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় যে দাবি করেছেন মেয়রের স্ত্রী তার কাছে বিভিন্ন সময় সাহায্যের জন্য এসেছিলেন তা সঠিক নয়। রত্নার দাবি বৈশাখির কাছে কোন সাহায্য চাওয়ার আগে যেন তাঁর মৃত্যু হয়!