ফেসবুকের তথ্য হাতিয়ে ট্রাম্পের নির্বাচনে কাজে লাগানোর অভিযোগ

নিজের পছন্দ থেকে শুরু করে  পারিবারিক নানা ছবি ও ভাবনা লিপিবদ্ধ করছেন ফেসবুকে। লিখছেন রাজনৈতিক মতামত। তাদের জন্য সতর্কবার্তা।  আমেরিকা বা ব্রিটেনের কোন কোম্পানি ছক কষে সেই সব তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে। আর তার পর তা দিয়ে আপনার প্রোফাইল বানিয়ে আপনাকে তাদের ইচ্ছেমত নানা তথ্য বা ফেক নিউজ পাঠিয়ে প্রভাবিত করতে পারে কিন্তু। অন্তত এমনটাই উঠে এসেছে ফেসবুকের  ৫ কোটি অ্যাকাউন্টের তথ্য হাতানোর চাঞ্চল্যকর খবরে। তা ব্যবহার করা হয়েছে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারে। ব্যবহার করেছে ব্রিটেনের কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা নামের একটি কোম্পানি । এই চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস করেছেন লন্ডনের কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা কোম্পানির প্রাক্তন কর্মী খ্রিস্টোফার ওয়েলি। প্রথমে অ্যাকাডেমিক জগতের একটি অ্যাপসের মাধ্যমে  ফেসবুকের তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার কাছ করেন  শিক্ষাজগতের এক ব্যক্তি। পরে তা বিক্রি করে দেওয়া হয় কেমব্রিজ অ্যানালিটিকাকে। খ্রিস্টোফার দাবি করেছেন এই সব তথ্যের ভিত্তিতে সফ্টওয়ার তৈরি করে এক একজনের প্রোফাইল অনুযায়ী নানা ফেক নিউজ পাঠান হতে পারে তার মতামতকে প্রভাবিত করার জন্য। আর এই কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার বিনিয়োগকারী সংস্থা নাকি আসলে একটি যুদ্ধবাজ কোম্পানি। বুঝুন তাহলে ,আগামী দিনের যুদ্ধের ধরনটা কী হতে চলেছে।