কর্নাটকের মখ্যমন্ত্রী ৪০ লাখ টাকার ঘড়ি পড়েন-অভিযোগ অমিত শাহের

এঁরা সকলেই নিজেদের জনগনের সেবক বলে প্রচার করেন,আর জনগনের সেবা করতে করতেই এঁরা অভ্যস্ত হয়ে ওঠেন বিলাস বহুল আয়েসী জীবন যাপনে।এদেশের রাজনৈতিক নেতা নেত্রীদের বিলাস বৈভব নিয়ে নানা সময়ে আলোচনা ও বিতর্ক হয়েছে,কিন্তু তাতে থেমে থাকেনি নেতা নেত্রীদের বিলাস বৈভব যাপন।জয়ললিতার শাড়ি ও গয়না প্রীতি যেমন আলোচনার বিষয় ছিল,তেমনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বহু মুল্যের স্যূট বিতর্কও খবরের শিরেনাম হয়েছে,এ রাজ্যে আলোচনা হয়েছে মমতা বম্দ্যোপাধ্যায়ের হেলিকপ্টার প্রীতি নিয়েও।আর মাত্র একদিন আগে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বাঙ্গালুরুতে সাংবাদিক সম্মেলন করে বললেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া নাকি যে ঘড়ি হাতে পড়েন তার দাম ৪০ লক্ষ টাকা।বিজেপি সভাপতি সিদ্দারামাইয়ার এই বিলাসিতাকেই তাঁর দুর্নীতির বড় প্রমাণ বলে দাবি করেন।

,