SSUকে বাদ দিয়েই চিকিত্সক সংগঠনগুলির সঙ্গে আলোচনায় রাজ্য সরকার

অনেক টালবাহানার পর সোমবার মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের প্রতিবাদী ডাক্তারসংগঠনগুলির সঙ্গে আলোচনায় বসলেন।নবান্নে ডাক্তার সংগঠনগুলির সঙ্গে আলোচনায় ডাক্তারদের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর উন্নয়নে কিছু প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফে।তবে এদিনের বৈঠকে সব কটি ডাক্তার সংগঠন ডাক পেলেও কেন এস এস ইউ বা শ্রমজিবি স্বাস্থ্য উদ্যোগ ডাক পেল না তা নিয়ে  প্র্শ্ন উঠে গেল।প্রসোঙ্গত সোমবারের বৈঠকে ডাকা হয়েছিল এইচএসএ কেও,যে সংগঠন ডাক্তারদের বর্তমান প্রতিবাদ আন্দোলনে নেই।অথচ এসএসইউ নামের যে সংগঠনটি স্বাস্থ্য পরিষেবাকে সর্বস্তরে নিয়ে যেতে সরকারের কাছে বার বার আবেদন করছে,সরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা সাধারণ মানুষের কাছে নিয়ে যেতে সর্বদা সোচ্চার থেকেছে তারা কেন বৈঠকে বাদ পড়ল তা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে ডাক্তার সংগঠনগুলির অন্দরেই।এসএসইউর পক্ষে ডাক্তার পুর্ণব্রত গুন জানান ডাক্তার সংগঠনগুলির ঐক্যকে ভাঙতে এটা সরকারের একটা কৌশল হতে পারে,সরকারের তরফে এটাকে যে ভুল হয়েছে বলে প্রচার হচ্ছে তা মানতে চান নি ডাক্তার গুন।তবে একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন সরকার চেষ্টা করলেও তাঁদের ঐক্য ভাঙতে পারবে না,জণস্বাস্থ্যের দাবিতে ও ডাক্তারদের নিরাপত্তার দাবিতে তাঁরা প্রতিবাদী ডাক্তারদের সঙ্গে ছিলেন ও থাকবেন।তবে এদিন সরকার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তা তাঁরা পর্যবেক্ষন করে দেখবেন কতটা কার্যকরি হচ্ছে তারপর অন্য দিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে মনে করছেন ওয়েষ্ট বেঙ্গল ডক্টর্স ফোরামের সভাপতি ডাক্তার রেজাউল করিম।

,