লালকেল্লাকে দত্তক ডালমিয়া গোষ্ঠীর , মুনাফা নাকি ইসলামিক ইতিহাসকে বিকৃত করার কৌশল?

নতুন ইতিহাস তৈরি হল নাকি ইতিহাস মুছে ফেলার চেষ্টা হল? শাহজানের সময় তৈরি লাল কেল্লাকে ‘দত্তক’  নিল ডালমিয়া ভারত গোষ্ঠী। বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী আগামী ৫ বছরের জন্য ২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে লালকেল্লাকে দত্তক নিল ডালমিয়া ভারত গোষ্ঠী। ভারত সরকারের ঐতিহাসিক সৌধকে দত্তক নেওয়ার প্রকল্পের অধীনেই ডালমিয়া ভারত গোষ্ঠী আপাতত লাল কেল্লার বকলমে লিজ হোল্ডার। রক্ষণাবেক্ষণের পাশাপাশি লাল কেল্লায় অনুষ্ঠিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রচারে নিজের নাম ব্যবহার করতে পারবে ডালমিয়া গোষ্ঠী। এখন থেকে লাল কেল্লার নামের পাশে লেখা থাকবে  ডালমিয়া ভারত গোষ্ঠীর দত্তক নেওয়ার কথাটি। নিজকই রাজস্ব আদায় বা করপোরেটদের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে কি সরকারের এই পদক্ষেপ? রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশের মতে কৌশলে ইসলামিক স্থাপত্যের ইতিহাসকে মুছে ফেলার চেষ্টারও অঙ্গ এটি। এখানেই শেষ নয় একাধিক ঐতিহাসিক ,সৌধকে দত্তক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। তাজমহলকে ‘দত্তক’ নেওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছে itc ও gmr স্পোর্টস গোষ্ঠী।