হাফিজুলের নিহত হওয়ার জন্যই কি অপেক্ষা করছিল প্রশাসন?

0
8

আবার রক্ত ঝড়ল ভাঙড়ে।শুক্রবার জমি কমিটির প্রচার মিছিলে দুষ্কৃতীদের আক্রমণে নিহত হয়েছেন হাফিজুল মোল্লি নামে বছর পচিশের এক যুবকের। হাফিজুল কমিটির সমর্থক ছিলেন।অভিযোগের তীর আরাবুলের বিরুদ্ধে।কয়েকদিন ধরেই শাসানি চলছিল বলে অভিযোগ জানিয়ে আসছিলেন ভাঙড়ের আন্দোলনকারীরা।ভাঙড়ে জমি কমিটিকে মনোময়োন দিতেও বাঁধা দেওয়া হয়েছিল,অনেক বাঁধা পেরিয়ে ৯ জন প্রর্থী দিতে পারলেও তাদের হুমকি দেওয়া হচ্ছিল বলে বার বার জমি কমিটির সদস্যরা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানাচ্ছিলেন।প্রশাসনের বিরুদ্ধেও নিঃস্ক্রিয়তার অভিযোগ ছিল।শুক্রবার প্রচার মিছিলে হামলা হয়,কয়েকজনের গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে।একজন মারা গেছে। মৃতের নাম হাফিজুল মোল্লা,বয়স ২৬।এই ঘটনার পর রাজ্য নির্বাচন কমিশন সরকারের কাছে রিপোর্ট চেয়েছে বলে খবর।পুলিশ অভিযোগ পেয়ে তৃণমূল নেতা আরাবুলকে গ্রেপ্তার করেছে।তবে জমি কমিটির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েযে বার বার বলা সত্ত্বেও পুলিশ আরাবুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়াতেই এই ঘটনা ঘটেছে।শেষ পর্যন্ত বড় ঘটনা ঘটায় এখন মুখ রক্ষা করতে আরাবুলকে গ্রেপ্তার করে ড্যামেজ কন্ট্রোল করছে প্রশাসন।ভাঙড়ে জমি আন্দোলনের সমর্থক হাফিজুলের খুনের প্রতিবাদে শনিবার ভাঙড় সংহতি কমিটির পক্ষ থেকে মৌলালি মোড় থেকে এক প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছে।বিকেল চারটে থেকে সেই মিছিলে সমস্ত গণতন্ত্রপ্রিয় মানুষকে সামিল হতে আহ্বান জানিয়েছে ভাঙড় আন্দোলনের সংহতি কমিটি।