গারদে বসেই আরাবুল তার পারিষদের দিয়ে হামলা করার ছক কষছে, অভিযোগ জমি রক্ষা কমিটির

ভাঙড়ে জমি আন্দোলনকারী মানুষজন তার বিরুদ্ধে যেহেতু ক্ষোভে ফুঁসছে,যেহেতু স্থানীয় এলাকায় তার বিরুদ্ধে গণরোষের ইঙ্গিত ছিল তাই মুখ্যমন্ত্রী তাকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়ে আপাতাত তার শেল্টারের ব্যবস্থা করল বলে মনে করছেন ভাঙড়ের জমি আন্দোলনের সমর্থকরা।একই সঙ্গে জমি জীবিকা বাস্তুতন্ত্র ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির পক্ষ থেকে রবিবার এক বিবৃতি দিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে,জেল কাস্টডির নামে আরাবুলকে ভাঙড় থানায় রেখে তার পারিষদদের ভোটে হামলা করার জন্য জেলের মধ্যেই মিটিং করবার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে পুলিশ প্রশাসন।সাধারণ মানুষ যাতে ভোট দিতে না পারে তার জন্য জেলের মধ্যে থেকেই যাবতীয় নির্দেশ আরাবুল যাতে দিতে পারে তার ব্যবস্থা পুলিশই করছে বলে জমি কমিটির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।শনিবার আরাবুলের বাড়ির বাগান থেকে যে বোমার গুদাম উদ্ধার করা হয়েছে ,সেগুলি যে বিরোধীদের শায়েস্তা করতেই মজুত করা হয়েছিল  তা নিয়েও সোচ্চার হয়েছেন জমি কমিটির আন্দোলনকারীরা।সোমবারের ভোটের আগে গোটা ভাঙড় একেবারে তেতে রয়েছে।জমিকমিটির পক্ষ থেকে সব সংবাদ মাধ্যমের কাছে আবেদন রাখা হয়েছে,গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে তারা যেন এই বিষয়টির উপর নজর রাখে যে প্রশাসনকে ব্যবহার করে আরাবুল বাহিনী কীভাবে সাধারণ মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকারকে হরণ করার প্রয়াস করছে।আরাবুলকে গ্রেপ্তার যে আসলে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুসারে স্রেফ একটা আই ওয়াশ সে প্রচারও করে চলেছেন জমি বাঁচাও আন্দোননের নেতা কর্মীরা।