সরকারি বাংলো ছাড়বেন না মায়াবতী। ২০১১তেই কাশীরাম স্মারক ভবন!

এক সময়  বাসস্থানের জন্য দেওয়া সরকারি বাংলো ছাড়তে পারবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী। কারণ ২০১১ সাল থেকে নাকি ওই বাংলো কাশীরাম স্মারকভবনে পরিণত হয়েছে। জানাচ্ছে সংবাদ সংস্থা পিটিঅাই। অথচ মিডিয়া রিপোর্ট  অনুযায়ী সোমবার, ২১ মে, সরকারি বাংলোতে রাতারাতি কাশিরামজী স্মারক বিশ্রামস্থলের সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেওয়া হয়।  অাসলে যেন তেন প্রকারে বাংলো ভোগ করবেন বলে ঠিক করেছেন মায়াবতী। অন্যদিকে বাংলো ছাড়তে নারাজ অারেক প্রাক্তনীও।  মাত্র ২ বছর সময় চেয়েছেন  প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবও।

কিছুদিন অাগেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীদের দেওয়া সরকারি বাংলো খালি করতে নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট। সর্বোচ্চ আদালতে যোগী সরকারের পক্ষে বলা হয়েছিল প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীরাও একটি বিশেষ শ্রেণির মানুষ, পদ চলে গেলেও তারা কিছু সুযোগ সুবিধা পাওয়ার যোগ্য। সরকারি বাংলো ভোগ করার বিষয় সর্বোচ্চ আদালতের উত্তরপ্রদেশ সরকারের এই যুক্তি মানে নি। তাদের বাংলো খালি করতে নির্দেশ দেয়। দেশের অধিকাংশ  দলিত বা গরীব মানুষের মাথার উপর ছাদ থাকুক বা না থাকুক এই সব নেতা নেত্রীদের বাংলো ছাড়া ঘুম হয় না।