ওঁদের ও লজ্জা হয়! বাংলোর মায়া ছাড়লেন মায়াবতী

0
22

মায়াবতীও লজ্জা পান। অার তাই ছাড়বো না বলেও শেষ পর্যন্ত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে বাসভবন হিসাবে প্রাপ্ত বাংলোটি ছেড়ে দিলেন তিনি। এর অাগে মায়াবতী জানিয়েছিলেন  ওই বাংলো  ছাড়তে পাবেন না তিনি।  কারণ ২০১১ সাল থেকে নাকি ওই বাংলো কাশীরাম স্মারকভবনে পরিণত হয়েছে।  অথচ মিডিয়া রিপোর্ট  অনুযায়ী সোমবার, ২১ মে, সরকারি বাংলোতে রাতারাতি কাশিরামজী স্মারক বিশ্রামস্থলের সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেওয়া হয়।  অাসলে যেন তেন প্রকারে বাংলো ভোগ করবেন বলে ঠিক করেছেন  মিডিয়ায় প্রচার হতেই সামনের নির্বাচনে ইস্যু হতে পারে ভেবে কি তড়িঘড়ি বাংলো ছাড়ার সিদ্ধান্ত মায়ার।

 প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীদের দেওয়া সরকারি বাংলো খালি করতে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সর্বোচ্চ আদালতে যোগী সরকারের পক্ষে বলা হয়েছিল প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীরাও একটি বিশেষ শ্রেণির মানুষ, পদ চলে গেলেও তারা কিছু সুযোগ সুবিধা পাওয়ার যোগ্য। সরকারি বাংলো ভোগ করার বিষয় সর্বোচ্চ আদালত উত্তরপ্রদেশ সরকারের এই যুক্তি মানে নি। তাদের বাংলো খালি করতে নির্দেশ দেয়।