স্বাস্থ্য দফতরের ‘সাফল্য’ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি কতবার শুনবেন রাজ্যবাসী

স্বাস্থ্য দফতর ও সরকারি হাসপাতালের কর্তাদের সঙ্গে  প্রায়  অাড়াই ঘন্টা বৈঠকের পর মিডিয়ার সামনে কিছু কথা বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বেশ কিছুক্ষণ ধরে ভাঙা রেকর্ডের মত বাজিয়ে গেলেন স্বাস্থ্য দফতরের সাফল্য। প্রতি বৈঠকেই  সাফল্যের এই খতিয়ান দেন তিনি। নিজেই সাবাশি দেন স্বাস্থ্য দফতরকে। (অার সব সমস্যার দায় চাপান কেন্দ্রের সরকারের উপর।) সরকারি হাসপাতালে বিনা পয়সায় চিকিত্সা দেওয়া হচ্ছে বলে এদিনও জানিয়েছেন মমতা। সরকারি  হাসপাতালের অাউটডোরে রোগীদের ভিড়ের কথাও বলেন মখ্যমন্ত্রী। ছুঁয়ে গেলেন চিকিত্সক নিগ্রহের বিষযয়টি। কিন্তু কোন কথা শোনা গেল না কেন জরুরী অস্ত্রপচারের জন্য রোগীদের সরকারি হাসপাতালে বেড পেতে মাসের পর মাস অপেক্ষা করতে হয়?  কেন জেলার সুপার মাল্টি স্পেশ্যালিটি হাসপাতালগুলোর একটা বড় অংশতে উপযুক্ত পরিকাঠামোর অভাব রয়েছে? কেন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সাপ থাকে?কেন কেন….. । এই কেন -র উত্তর দিতে রাজি নন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অার তাই সাংবাদিকদের নিরামিষ  প্রশ্ন ( নিপা নিয়ে) শোনার অাগেই পিছন ফিরে হাঁটতে শুরু করলেন তিনি।

,