মালদার গাজোলে কৃষকদের কৃষিজমি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে কৃষকের কৃষিজমি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ তুলে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছে দক্ষিণচব্বিশ পরগণার ভাঙড়।ভঙড়ে কৃষকদের সেই বিদ্রোহ চলাকালীনই মালদার গাজলে প্রশাসনের সহায়তায় কৃষিজমি দখল করে এক বেসরকারী ঠিকাদার সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ উঠল।এই অভিযোগে স্থানীয় কৃষকরা বিক্ষোভে সামিল হয়েছে।কৃষিজমি বাঁচাও কমিটি তৈরি করে এলাকার কৃষকরা প্রশাসনের সহযোগিতায় এই কৃষিজমি ছিনিয়ে নেওয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে জোট বাঁধতে শুরু করেছেন।কৃষিজমি বাঁচাও কমিটির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে,মালদার গাজোল থানার অন্তর্গত আকালপুর মৌজার সাঁকরোল বিল এলাকার ৩০০ বিঘা জমি দখল করে নিতে সিএবি ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেড  সচেষ্ট হয়ে উঠেছে।তারা মাটি খুঁড়ে ইতিমধ্যেই জমির চরিত্র বদল করতে কাজ শুরু করে দিয়েছে।তবে এর প্রতিবাদে গত সোমবার কৃষকরা জমিতে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করলে ঠিকাদার সংস্থার কর্মীরা জমি ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়।তারপর থেকেই জমি বাঁচাতে লাগাতার প্রতিরোধ কর্মসূচি নিয়ে চলেছে জমি বাঁচাও কমিটি।তারা প্রশাসনকে প্রতিবাদ পত্র দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে।স্থানীয় কৃষকদের অভিযোগ এর আগেও এই ভাবে জমি দখলের চেষ্টা হয়েছে,তখনও তারা প্রশাসনের সাহায্য চেয়েছিলেন,তবে প্রশাসন দেখছি-দেখবো বলে বিষয়টি এড়িয়ে গেছে।জমি বাঁচাও কমিটির আশঙ্কা প্রশাসনের সহযোগিতাতেই এই জমি দখলের উদ্যোগ চলছে,তা না হলে বিডিও,বিএলআরও,ডিএমকে বলা সত্ত্বেও কেন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।৩০০ বিঘা এই জমিতে কৃষিকাজ করে জীবন যাপন করেন প্রায় কয়েকশো কৃষক পরিবার,এই জমি দখল হয়ে গেলে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়তে হবে তাদের,তাই সম্মিলিত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে বদ্ধপরিকর গাজোলের কৃষক সম্প্রদায়।