জীবনদায়ী অক্সিটোসিনের সরবরাহ নিয়ে অাশঙ্কার কারণ নেই জানাল সরকারি কোম্পানি

অক্সিটোসিনের অপব্যবহার রুখতে ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুধুমাত্র সরকারি কোম্পানি কর্নাটক ফারমাসিউটিক্যালকে এই ওষুধ তৈরি করে বাজারে বিক্রি করার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র। ১ সেপ্টেম্বর থেকে অার কোন বেসরকারি কোম্পানি অক্সিটোসিন উত্পাদন করতে পারবে না। গরুর দুধ অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি করতে অক্সিটোসিনের অপব্যবহার হয়ে থাকে। কিন্তু এটি একটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ওষুধ, বিশেষ করে প্রসবের সময়  অতিরিক্ত রক্তপাত বন্ধ করতে চিকিত্সকেরা রোগীকে অক্সিটোসিন দিয়ে থাকেন। একটা অংশের থেকে প্রচার করা হচ্ছে সরকারি সংস্থার হাতে অক্সিটোসিন উত্পাদন একচেটিয়াকরণ হয়ে যাওয়া বাজারে চাহিদা অনুযায়ী তা তারা সরবরাহ করতে পারবেন না।যদি ওষুধ নির্মাতাদের তরফে একে অপপ্রচার বলে উল্লেখ করে জানান হয়েছে সারা দেশে মাসে ২৫ লক্ষ ইউনিট অক্সিটোসিন লাগে, অার তাদের উত্পাদন ক্ষমতা মাসে ৫০ লক্ষ ইউনিট। ফলে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। এখন দেখার এই জীবনদায়ী ওষুধ নিয়েও কালোবাজারি চলে কিনা।

,