দেশের প্রধানমন্ত্রী এক সময় চা বিক্রেতা ছিলেন। তা নিয়ে শাসকদলের কতই না গর্ব। অথচ দেশের চা শ্রমিক বিশেষ করে এরাজ্যের চা শ্রমিকদের দুরবস্থার বিষয় কেউ খুব একটা চিন্তিত বলে মনে হয় না। কারণ মাত্র ন্যূনতম দৈনিক ২৩৯ টাকা মজুরির দাবি মানতে রাজি হচ্ছে না এরাজ্যের সরকার। তাদের প্রস্তাবিত দৈনিক মজুরি ১৭২ টাকা।  ৬ অগস্ট রাজ্য সরকারের শ্রম সচিবের প্রস্তাবিত দৈনিক ১৭২টাকার ন্যূনতম মজরি মানতে নারাজ চা শ্রমিকেরা। তাই দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া তরাই ও ডুয়ার্সের চা শ্রমিকরা দৈনিক ন্যূনতম ২৩৯ টাকা দৈনিক মজুরির দাবিতে জয়েন্ট ফোরামের ডাকে ৭ অগস্ট থেকে৩ দিন ধর্মঘটে সামিল হন। তাতে কিছুটা চাপ তৈরি হলেও  দাবি অাদায় এখন সম্ভব হয়নি । অথচ অসম সরকার চা শ্রমিকদের জন্য দৈনিক মজুরি ঘোষণা করেছে ৩৫১ টাকা। অন্তত এমনটাই দাবি চা শ্রমিকদের যুক্তফোরামের কনভেনর বাসুদেব বসুর। এরাজ্যে ন্যূনতম ২৩৯ টাকার দাবি মানাতো দূরের কথা  অান্দোলনকারী চা শ্রমিকদের নেতাদের ধরপাকড়ের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বাসুদেব বসু।
"/>
Friday, December 4, 2020
Home রাজ্য অসমে চা শ্রমিকেদর দৈনিক মজুরি ৩৫১ টাকা ঘোষণা হলেও এরাজ্যে ২৩৯ টাকার...

অসমে চা শ্রমিকেদর দৈনিক মজুরি ৩৫১ টাকা ঘোষণা হলেও এরাজ্যে ২৩৯ টাকার দাবি মানতে নারাজ সরকার

0
24

দেশের প্রধানমন্ত্রী এক সময় চা বিক্রেতা ছিলেন। তা নিয়ে শাসকদলের কতই না গর্ব। অথচ দেশের চা শ্রমিক বিশেষ করে এরাজ্যের চা শ্রমিকদের দুরবস্থার বিষয় কেউ খুব একটা চিন্তিত বলে মনে হয় না। কারণ মাত্র ন্যূনতম দৈনিক ২৩৯ টাকা মজুরির দাবি মানতে রাজি হচ্ছে না এরাজ্যের সরকার। তাদের প্রস্তাবিত দৈনিক মজুরি ১৭২ টাকা।

 ৬ অগস্ট রাজ্য সরকারের শ্রম সচিবের প্রস্তাবিত দৈনিক ১৭২টাকার ন্যূনতম মজরি মানতে নারাজ চা শ্রমিকেরা। তাই দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া তরাই ও ডুয়ার্সের চা শ্রমিকরা দৈনিক ন্যূনতম ২৩৯ টাকা দৈনিক মজুরির দাবিতে জয়েন্ট ফোরামের ডাকে ৭ অগস্ট থেকে৩ দিন ধর্মঘটে সামিল হন। তাতে কিছুটা চাপ তৈরি হলেও  দাবি অাদায় এখন সম্ভব হয়নি । অথচ অসম সরকার চা শ্রমিকদের জন্য দৈনিক মজুরি ঘোষণা করেছে ৩৫১ টাকা। অন্তত এমনটাই দাবি চা শ্রমিকদের যুক্তফোরামের কনভেনর বাসুদেব বসুর। এরাজ্যে ন্যূনতম ২৩৯ টাকার দাবি মানাতো দূরের কথা  অান্দোলনকারী চা শ্রমিকদের নেতাদের ধরপাকড়ের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বাসুদেব বসু।