কলকাতায় এটিএমে স্কিমার বসাতে এসে ধৃত অারো৩, উদাসীন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

কলকাতার এটিএম প্রতারণার কথা দেশের অর্থমন্ত্রী জানেনই না, বুধবারই সংসদে সে কথা কবুল করেছিলেন অর্থমন্ত্রী। আর তার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই  কলকাতার এলগীন রোডের কোটাক মহেন্দ্র ব্যাঙ্কের একটি এটিএমে স্কিমার বসাতে এসে নিরাপত্তারক্ষীর তত্পরতায় হাতেনাতে ধরা পড়ে এক জালিয়াত। পরে চক্রের অন্য২জনকে গ্রেফতার করে  সিআইডি । মঙ্গলবার  এলগীন রোডের ওই  এটিএমে স্কিমার লাগানোর চেষ্টা করছিল ৩ দূষ্কৃতী। ১ জন এটিএমের ভিতরে ঢুকে স্কিমার লাগাচ্ছিল। অন্য২জন গ্রাহক সেজে বাইরে দাঁড়িয়েছিল।এটিএমের বাইরে থাকা নিরাপত্তারক্ষী ভিতরে কিছু পড়ার শব্দ( যন্ত্রপাতি) শুনতে পেয়ে এটিএমে ঢুকে বুঝতে পারেন স্কিমার লাগানো হয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে ধরে ফেলেন প্রতারককে। ২জন পালিয়ে যায় ঘটনাস্থল থেকে। ধৃতকে জেরা করে পরে তাদেরও গ্রেফতার করা হয়। ধৃতরা মুম্বইয়ের বাসিন্দা। স্কিমারকাণ্ডে ২জন রোমানিয়ার নাগরিককে গ্রেফতারের পরও স্কিমার লাগানোর চক্র সক্রিয় থাকায় উদ্বিগ্ন গ্রাহকরা। কিন্তু সবথেকে অাশ্চর্যের বিষয় হল এটিএমে জালিয়াতিতে বিদেশি সহ একটি চক্র সক্রিয় থাকার পরও তাকে ঠেকাতে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বা সরকার কোন  পদক্ষেপ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।