রেজাউল করিমের অন্যায় বদলির প্রতিবাদে সরব একাধিক চিকিত্সক সংগঠন

ডাক্তার রেজাউল করিমকে যে ভাবে আচমকা সাগর দত্ত হাসপাতাল থেকে রায়গঞ্জের এক নির্মীয়মান মেডিকেল কলেজে বদলি করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সরব হয়েছেন একাধিক ডাক্তার সংগঠন।বুধবার রাজ্য সরকারের এই অনৈতিক সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ওয়েষ্ট বেঙ্গল ডক্টরস ফোরাম,শ্রমজীবী স্বাস্থ্য উদ্যোগ,হেলথ সার্ভিস এ্যসোসিয়েসন,ডক্টরস ফর ডেমোক্রাসি ও এ্যসোসিয়েসন অব হেলথ সার্ভিস ডক্টরস স্বাস্থ্য ভবনে গিয়ে ডিরেক্টর অফ মেডিক্যাল এডুকেশনের কাছে ডেপুটেশন দিয়েছেন।প্রতিবাদী ডাক্তার সংগঠন গুলির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে গণতান্ত্রীক রীতিকে লঙ্ঘন করে ডাক্তার করিমকে বদলি করা হয়েছে।ডাক্তার করিম ওয়েষ্টবেঙ্গল ডক্টরস ফোরামের সভাপতি ও চিকিত্সকদের যুক্ত মঞ্চের আহ্বায়ক।এই সময় রাজ্যে মেডিকেল কাউন্সিলের নির্বাচন পর্ব শুরু হয়েছে,এই সময় কোন সংগঠনের প্রধান ব্যক্তিকে সদর দপ্তর থেকে দুরে বদলি করে দেওয়া রীতি বিরুদ্ধ।রাজ্য সরকার একেবারে সচেতনভাবে এই কাজ করেছে বলে প্রতিবাদী চিকিত্সকদের অভিযোগ।তাছাড়া ডাক্তার করিম নিজেও নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন এই সময় তাঁর বদলি চূড়ান্ত অগণতান্ত্রীক বলেই প্রতিবাদী চিগিত্সক সংগঠনগুলির দাবি।এই বদলির সিদ্ধান্ত সরকারকে প্রত্যাহার করতে হবে বলে দাবি করে সরকারি চিকিত্সকদের একাংশ লাগাতার প্রতিবাদ করে যাবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন।প্রতিবাদী ডাক্তারদের পক্ষে ডাক্তার পুণ্যব্রত গুন জানান,ডাক্তার করিম একজন দক্ষ রেডিওলজিস্ট,কিন্তু তাঁকে যেখানে বদলির সিদ্ধান্ত হয়েছে সেখানে রেডিওলজি পরিষেবা দেওয়ার ব্যবস্থাই নেই।এমনিতেই সরকারী পরিষেবায় রেডিওলজিস্টদের সংখ্যা যথেষ্ট কম,তার উপর যদি একজন দক্ষ রেজিওলজিস্টকে বসিয়ে রাখা হয় তা অবশ্যই সম্পদের অপচয়ের সামিল।প্রতিবাদী চিকিত্সকরা বলেন সরকার যে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে বিন্দুমাত্র ভাবিত নয় এই ঘটনা তারই প্রমাণ।সরকারের এই চূড়ান্ত প্রতিহিংসা পরায়ন মানসিকতার বিরুদ্ধে একজোট হয়ে লড়াইয়ের বার্তা দিতেই যে তারা স্বাস্থ্য ভবনে গিয়ে ডেপুটেশন দিয়ে এসেছেন তা জানিয়ে প্রতিবাদী ডাক্তার সংগঠন গুলি ঘোষণা করে তারা এই অনৈতিক বদলির বিরুদ্ধে আইনি লড়াইও শুরু করবেন।

,