বাজেটে ঘোষণা করা স্বাস্থ বিমার কথা লালকেল্লা থেকে ফের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

বাজেটে অাগেই  ঘোষণা করা হয়েছিল । এবার লাল কেল্লা থেকে মাথায় পাগড়ি বেঁধে প্রধানমন্ত্রী ৭২তম স্বাধীনতা স্বাধীনতা দিবসে অাবারো ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী  স্বাস্থ্য বিমা, যার নাম অায়ুষমান ভারত চালু করার কথা। অার্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া ৫০ কোটি মানুষের জন্য বছরে ৫ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্য বিমা। অানুষ্ঠানিক সূচনা হবে ২৫ সেপ্টেম্বর। জনসংঘরের  অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা দীনদয়াল উপাধ্যায়ের জন্মদিনে। কিন্তু কেন একজন জনসংঘীর জন্মদিনে সরকারি প্রকল্পের ঘোষণা তার উত্তর সরকার দেওয়ার প্রয়োজন মনে করে না। তার থেকেও বড় কথা হলে ২৫ সেপ্টেম্বর যে স্বাস্থ্য বিমা দেশজুড়ে চালু করবে বলে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করছেন তার জন্য এখনও পর্যন্ত অনেক রাজ্য সরকারের সঙ্গে কেন্দ্রের চুক্তি স্বাক্ষর হয়নি। বিমা কোম্পানিগুলির সঙ্গেও বোঝাপড়াও চূড়ান্ত নয় বলে মিডিয়ার একাংশের রিপোর্ট। সব থেক সংশয়ের জায়গা হল এই বিমার জন্য কোথা থেকে অাসবে টাকা?  এই খাতে এবছরের কেন্দ্রীয় বাজেটে মাত্র ২০০০ কোটি টাকার সংস্থান করা হয়েছে। অন্যদিকে প্রিমিয়াম বাবদ ঠিক কত টাকা লাগবে তা নিয়ে সরকারের নানা মত। কখনও বলা হচ্ছে ৫- ৬ হাজার কোটি টাকা লাগবে। কখনও বলা হচ্ছে ১০ -১১ হাজার কোটি টাকা। তা আবার রাজ্যের সঙ্গে মিলে দেওয়া হবে এই প্রিমিয়াম। রাজ্য দেবে ৪০% । কেন্দ্র দেবে ৬০ শতাংশ। প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের দাবি এই বিমার প্রিমিয়ামের জন্য বছরে লাগবে প্রায় ১ থেকে দেড় লক্ষ কোটি টাকা। চিদম্বরমের ভাষায় এটা আসলে বিজেপির আরেকটি  মিথ্যে প্রতিশ্রুতি মাত্র।

স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে যুক্ত ব্যক্তিদের একাংশের মতে একদিকে  জনস্বাস্থ্যের দায় নিজেদের ঘাড় থ ঝেড়ে ফেলতে চাইছে সরকার। অথচ  এত বড় প্রকল্প চলবে কী করে তা নিয়ে  রয়ে গেছে সংশয়।