বিহারে অধ্যাপককে মারধরের বিরুদ্ধে নীরব কেন এরাজ্যের শিক্ষক সমাজ?

অটল বিহারী বাজপেয়ীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনা করায় বিহারের মোতিহারি কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপক বেধড়ক মারধর করা হল। অাক্রান্ত অধ্যাপক সঞ্জয় কুমারের অভিযোগ হামলাকারীরা তাঁকে তাঁর ৪তলার ফ্ল্যাট থেকে টেনে হেঁচড়ে নামিয়ে এনে মারধর করার পর জীবন্ত পুড়িয়ে মারার চেষ্টাও করেছিল। অাক্রান্ত অধ্যাপকের দাবি শুধু বাজপেয়ীকে সমালোচনা  করাই নয়, উপাচার্যের কাজকর্মের বিরুদ্ধেও সরব হয়েছিলেন তিনি। হামলাকারীরা উপাচার্যের মদতপুষ্টলোকজন বলে অভিযোগ ওই অধ্যাপকের। বিহারের ঘটনা হলেও একজন কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপককে  এরকমভাবে নিগ্রহের পরও বাংলার শিক্ষক সমাজকে প্রতিবাদে সামিল হতে লক্ষ করা যাচ্ছে না। বিষয়টি যেকোন সভ্যসমাজের ক্ষেত্রেও যথেষ্ট উদ্বেগের। অনেকের এখন অার এই বলে এড়িয়ে যেতে পারবেন না এটা বিহারের বিষয়, এরাজ্যে হয়না। কারণ এরাজ্যেও এখন এরকম ঘটনা মাঝে মধ্যেই ঘটছে।