১৬দিন ধরে অাকাশের নীচে বসে থাকা ছাত্রদের নিয়ে

 

মালদা থেকে কলকাতায় এসে অ্যাকাদেমির সামনে গত ১৬ দিন ধরে খোলা আকাশের নীচে  বসে থাকা ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে কারো কোন মাথা ব্যথা নেই । কেন্দ্রীয় সরকারি প্রতিষ্ঠানে পড়ার পর ডিগ্রির স্বীকৃতির দাবিতে অ্যাকাদেমির সামনে প্রতিবাদী অবস্থান  চালিয়ে যাচ্ছেন মালদায় গণিখান চৌধুরির নামাঙ্কিত GKCIET কলেজের পড়ুয়ারা। ইতিমধ্যেই মালদায় প্রতিবাদী কলেজ ছাত্র ও ছাত্রীদের উপর পুলিশি জুলুমবাজির অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ উঠেছে এখানকার কলেজ ছাত্রীদের ধর্ষণের হুমকি দিচ্ছে প্রশাসনের মদত পুষ্ট বহিরাগত গুন্ডার দল।কিন্তু তবুও প্রতিবাদের রাস্তা থেকে সরে আসতে রাজি নয় মালদা কলেজের পড়ুয়ার দল।এ্যকাডেমির সামনে রাণু ছায়া মূর্তির সামনে টানা ১৩ দিন অবস্থান বিক্ষোভ চালালেও প্রশাসনের কেউ বা রাজ্যপাল তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে রাজি হয় নি এখনও পর্যন্ত।ঝড় বৃষ্টি উপেক্ষা করে আবস্থান আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন পড়ুয়ারা।এঁদের দাবি যে কলেজে তাঁরা পড়াশুনা করেছে সেটি কেন্দ্রীয় সরকারের সংস্থা,প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এই কলেজ উদ্ভোধন করে গেছেন,সেই কলেজ থেকে দেওয়া ডিগ্রির যদি কোন বৈধতা না থাকে তার জন্য তাঁরা কোন ভাবেই দায়ী নয়।এর দায় নিতে হবে কেন্দ্রীয় সরকারকে,দিতে হবে তাঁদের ভবিষ্যতের নিশ্চয়তা।কলকাতায় লাগাতার বিক্ষোভ সমাবেশের মধ্যেই প্রতিবাদী ছাত্রদের বাড়িতে তাদের অভিভাবকদের ফোন করে হুমকি দেওয়া শুরু হয়েছে বলে অভিযোগ। ছাত্রদের তরফে সোমবার যে নাগরিক কনভেনশনের ডাক দেওয়া হায়েছিল তা সভাস্থলে অনুমতি না থাকায়  করা সম্ভব হয়নি।তবে প্রতিবাদী ছাত্ররা চাইছেন নাগরিক সমাজের পরামর্শ।সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষ তাদের পাশে দাঁড়ালে তাদের আন্দোলন জোর পাবে সেই বিশ্বাস থেকে তারা সকলকে তাদের পাশে দাঁড়াববার আবেদন রাখছেন।আবার একটা নাগরিক কনভোনশন করা যায় কিনা তা নিয়েও আলোচনা করছেন প্রতিবাদী ছাত্ররা।

,