প্রাক্তন মন্ত্রী শাসক দলে যোগ দেওয়ার পরেই মেয়ের নাম স্কুল সার্ভিস কমিশনের তালিকায়ঃসিবিআই তদন্তের দাবি বিজেপির

রাজ্যের প্রাক্তন খাদ্য মন্ত্রী পরেশ অধিকারী দিন কয়েক আগে যোগ দিয়েছেন রাজ্যের শাসক দলে।আর শাসক দলে যোগ দিতে না দিতেই তাঁকে নিয়ে শুরু হয়ে গেল বিতর্ক।অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে প্রাক্তন বামফ্রন্ট মন্ত্রিসভার সদস্য পরেশবাবু তৃণমূলে যোগ দেওয়ার কয়েক দিনের মধ্যেই তাঁর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর নাম স্কুল সার্ভিস কমিশনের তালিকাভুক্ত হয়েছে। স্কুল সার্ভিস কমিশনের রাষ্ট্র বিজ্ঞানের জন্য অপেক্ষারত শিক্ষক তালিকায় আচমকাই প্রথমেই অঙ্কিতা অধিকারীর নাম উঠে আসায় বিতর্ক শুরু হয়েছে।বিরোধীদের অভিযোগ এর পেছনে রয়েছে গোপন দেনা পাওনার হিসেব,তা না হলে আচমকাই প্রথমেই প্রাক্তন মন্ত্রীর মেয়ের নাম উঠে আসত না।এ বিষয়ে  প্রতিক্রিয়া দিয়ে পরেশ অধিকারী বলেন তাঁর মেয়ে পরীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি তালিকাভুক্ত হয়েছেন বলে সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জেনেছি তাই এ বিষয়ে বাড়তি কিছু এখনই বলবো না।বিরোধীরা অবশ্য আক্রমণ শানাতে ছাড়ছে না।বিজেপির মেখলিগঞ্জের সংগঠন বিষয়টির সিবিআই তদন্ত চেয়ে কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছে ইতিমধ্যেই।তারা দাবি করেছে এ রাজ্যে চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে যে চূড়ান্ত স্বজন পোষণ হয় এই ঘটনা তারই প্রমাণ।গোটা বিষয়টার তদন্ত দরকার।কেন্দ্রের মানব সম্পদ উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী প্রকাশ জাওড়েকরকে লেথা চিঠিতে মেখলিগঞ্জের বিজেপি নেতৃত্ব অবিলম্বে এই ঘটনার তদন্তের আবেদন করেছে।প্রয়োজনে যেন সিবিআই তদন্ত হয় সেই আর্জি জানিয়ে বিজেপি নের্তৃত্ব চিঠির সঙ্গে আগের তালিকা যেখানে অঙ্কিতার নাম নেই এবং পরের তালিকা যেখানে আচমকাই প্রথম নামটাই প্রাক্তন মন্ত্রীর মেয়ের তার জেরক্স কপি পাঠিয়েছে বলে দাবি করেছে।সব মিলিয়ে প্রাক্তন মন্ত্রীর মেয়ের নাম স্কুল সার্ভিস কমিশনে উঠে আসা নিয়ে রাজ্য জুড়েই বিতর্কের পারদ ক্রমেই চড়তে শুরু করে দিয়েছে।

, ,