রাফাল নিয়ে শুধু মিডিয়ার সামনেই কেন কংগ্রেস?

UPA চুক্তি করেছিল  ফরাসি সংস্থা দ্যাঁসল্ট  থেকে  ৫২৬ কোটি টাকায় প্রতিটি রাফাল বিমান কেনার। সেই চুক্তি বাতিল করে মোদি সরকার ওই একই সংস্থা থেকে ১৬৭০ কোটি টাকায় বিমান কেনার চুক্তি করেছে। শনিবার কলকাতায় প্রাক্তন চিদম্বরম ফের এই অভিযোগ তুললেন। এর অাগেও এই অভিযোগ করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুস গান্ধী।  কিছুদিন অাগে দিল্লিতে এক সাংবাদিক  বৈঠকে  অরুণ শৌরি, প্রশান্ত ভূষণ ও যশবন্ত সিনহা অভিযোগ করেছিল রাফাল চুক্তির জন্য প্রায় ৩৫০০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে কেন্দ্রের।  সেই বৈঠকে   শৌরি জানিয়েছিলেন  বর্তমান সরকারের এই ‘বোকারা’ ২০১৬ সালের নভেম্বরে লোকসভায় বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিলপ্রতিটি রাফাল বিমানের দাম ৬৭০ কোটি টাকা। সরকার এখন দাম প্রকাশ করতে না  চাইলেও সাংবাদিক বৈঠকে অরুণ শৌরির দাবি রাফাল নির্মাতা দ্যাঁসল্ট এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে যে তথ্য জানিয়েছে তা থেকে দেখা যাচ্ছে প্রতিটি বিমান কেনা হচ্ছে অন্তত ১৬৬০ কোটি টাকায়। তাছাড়া রাষ্ট্রাযত্ত সংস্থা HAL কে হঠিয়ে, অভিজ্ঞতা না থাকায় সত্বেও সরকারের বন্ধু অনিল অাম্বানির নতুন কোম্পানি ২০ হাজার কোটি টাকার বরাত পাইয়ে দেওয়া হয়েছে। অার এই সব করেছেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, তত্কালীন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিক্করের সঙ্গে অালোচনা ছাড়াই। । প্রশ্ন উঠছে  এত বড় দুর্নীতির অভিযোগে কেন বিরোধীরা  সরব হতে পারছে না? কংগ্রেস সভাপতি তার ভাষণে রাফাল নিয়ে বারবার সরব হলেও রাস্তায় নেমে তার দলের কর্মীদের প্রতিবাদ কোথায়?

,