দেশের সবথেকে বড় পুঁজিপতিকে সুবিধা করে দিতেই নোট বাতিলে সিদ্ধান্ত মোদির, কেলেঙ্কারির অভিযোগ রাহুলের

বাতিল হওয়া ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোটের ৯৯ শতাংশের বেশি ব্যাঙ্কে ফিরে এসেছে। বুধবার রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে এই তথ্য জানানোর পর শুক্রবার কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী নোট বাতিলকে এক বড় অার্থিক কেলেঙ্কারি বলে অাখ্যা দিলেন। রাহুল জানিয়েছেন বড় করপোরেটদের স্বার্থে  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছিলেন, এটা কোন ভুল থেকে হয়নি। কারো নাম না করে  রাহুল  বলেন দেশের থেকে বড় সরকার পোষিত পুঁজিপতির ( ক্রনি ক্যাপিটালিস্ট) পকেটে প্রধানমন্ত্রী জনতার টাকা  তুলে দিয়েছেন। ইঙ্গিত মুকেশ অাম্বানির দিকেই। সেই সঙ্গে অামদাবাদে অমিত শাহের সমবায় ব্যাঙ্কে ৭০০ কোটি টাকার নোট বদল করে মিত্রদের কালো টাকা সাদা করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। অনেকে বলছেন নোট বাতিলের জেরে কালো টাকা উদ্ধার তো দূরের কথা উল্টে সরকারের ব্যায় হয়েছে উদ্ধারের অঙ্কের থেকে বেশি। অার এই বিষয়টি সামনে অাসতেই মিডিয়ার নজর ঘুরিয়ে দিতেই নাকি সমাজকর্মীদের এক সঙ্গে গ্রেফতারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।সত্যি হলে অবাক হওয়ার কিছু নেই!

,